দেশের প্রথম রেলস্টেশন এখন পরিত্যক্ত!
দেশের প্রথম রেলস্টেশন এখন পরিত্যক্ত!

সংগৃহীত ছবি

দেশের প্রথম রেলস্টেশন এখন পরিত্যক্ত!

জাহিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

বাংলাদেশের প্রথম রেলস্টেশন কুষ্টিয়ার ‘জগতি’। ব্রিটিশ আমলে কলকাতার শিয়ালদহ থেকে কুষ্টিয়া পর্যন্ত যাতায়াতে ১৮৬২ সালে এ স্টেশনটি চালু করা হয়। ১৮৬২ সালের ১৫ নভেম্বর ভারতের নদীয়া জেলার রানাঘাট স্টেশন থেকে একটি ট্রেন এসে থেমেছিল এ স্টেশনে। সেসময় এখানে ট্রেন দেখতে মানুষের ভিড় লাগতো।

 

কিন্তু ১৬০ বছরের পুরনো এ স্টেশন এখন পরিত্যক্ত। এখানে নেই কোন কর্মী। এখন আর থামেনা সবগুলো ট্রেন। মাঝেমধ্যে দেশের প্রথম রেলস্টেশন দেখতে আসেন শুধু পর্যটকগণ। স্টিম ইঞ্জিনে পানি দেয়ার বিশাল ট্যাংকি জগতি স্টেশনে এখনো দাঁড়িয়ে আছে কালের সাক্ষী হিসেবে। অথচ দেশের প্রথম রেল স্টেশন নিয়ে আবেগ আছে স্থানীয়দের।

দূর থেকে দেখতে বেশ আকর্ষণীয় দেশের প্রথম এই রেলস্টেশন জগতি। কিন্তু কাছে গেলে দেখা যাবে, একেবারে জরাজীর্ণ ১৬০ বছরের পুরনো স্থাপনাগুলো। ইট, পলেস্তরা, জানালা-দরজা, আসবাবপত্র সব নষ্ট হয়ে গেছে। মুছে গেছে ট্রেন আসা যাওয়ার তালিকা। অনেকটা ভূতুরে পরিবেশ। পোড়াদহ-গোয়ালন্দ-টুঙ্গীপাড়া রুটে এখন দিনে ১০বার ট্রেন আসা যাওয়া করলেও জগতিতে থামে মাত্র ২টি ট্রেন।  

পাকশী রেলওয়ের বিভাগীয় কমার্শিয়াল অফিসার মো. নাসির উদ্দিন জানান, বিশাল আয়তনের এই রেল স্টেশনটি সংস্কার করে একটি জাদুঘর করার পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

news24bd.tv/desk