প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের রাজশাহীতে কেন শব্দদূষণ!
প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের রাজশাহীতে কেন শব্দদূষণ!

ভিডিও থেকে নেয়া

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের রাজশাহীতে কেন শব্দদূষণ!

কাজী শাহেদ, রাজশাহী :

বায়ুদূষণ কমানোর ক্ষেত্রে রাজশাহী ছিল বিশ্বসেরা শহর। এবার তার নামই উঠে এসেছে শব্দদূষণে বিশ্বের শীর্ষ চারে। সবুজশোভিত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য দেশজোড়া যার খ্যাতি, জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচির সর্বশেষ প্রতিবেদনটির তার এমন হাল কেন? গত কয়েক বছরে এই শহরে উন্নয়নকাজ বেড়েছে। সেগুলো হয়ে উঠেছে শব্দদূষণের বড় কারণ, বলছেন গবেষকরা।

 

গাড়ির চাকা না গড়ালেও বিনা কারণে সেসব জায়গায় তীব্র হর্ন ঠিকই দিয়ে যান চালকরা। সঙ্গে অটোরিকশার দাপট। যদিও তাদের হর্নই থাকার কথা না। পুরনো দালান ভাঙা পড়ছে। গড়ে উঠছে বহুতল ভবন। বিকট শব্দ তাই এখন রাজশাহী মহানগরীর প্রতিটি এলাকায়।

আকাশছোঁয়া ভবনের পাশাপাশি শহরজুড়ে চলছে কয়েকশ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ। সেখানে ধীরগতি হয়ে পড়া গাড়ির হর্ন আর নির্মাণযন্ত্রের একঘেয়ে শব্দ সারাদিন।

জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচির প্রতিবেদনে রাজশাহীকে বিশ্বের চতুর্থ শীর্ষ শব্দদূষণকারী শহর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নির্মাণকাজের আধিক্য শব্দ দূষণ বৃদ্ধির অন্যতম কারণ।

২০১৬ সালে বায়ুদূষণ কমানোয় বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার তালিকায় শীর্ষে থাকা শহরটিতে যানজট এখনও প্রকট নয়। তবু রাস্তায় যানবাহনের হর্নের লাগামহীনতা। নগরীর উপকণ্ঠে বাসটার্মিনাল আছে। অথচ শহরের ভেতরেও এখন অন্তত ৫টি স্থানে বাস দাঁড়ায়।

গবেষকরা বলছেন,পরিস্থিতির আরও অবনতি ঠেকাতে এখন থেকেই শব্দদূষণ কমানোর সমন্বিত উদ্যোগ নিতে হবে।

news24bd.tv/ কামরুল