বাগেরহাটে প্রত্যন্ত গ্রামে আধুনিক মসজিদ
বাগেরহাটে প্রত্যন্ত গ্রামে আধুনিক মসজিদ

বাগেরহাটে প্রত্যন্ত গ্রামে আধুনিক মসজিদ

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার প্রত্যন্ত এক গ্রাম পদ্মনগরে ব্যক্তি উদ্যোগে নির্মিত হয়েছে নান্দনিক ডিজাইনের আধুনিক মসজিদ কমপ্লেক্স। আধুনিক স্থাপত্য বিদ্যার সাথে মুসলিম ঐতিহ্যের সংমিশ্রণে তৈরি একগম্বুজ বিশিষ্ট এই মসজিদের চোখ জুড়ানো সৌন্দর্য্য দেখে মুগ্ধ সবাই। পদ্মনগর গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সরদার জাহিদুল ইসলামের নিজস্ব অর্থায়নে ইজারা পদ্মনগর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ নামের এই মসজিদটি নির্মিত হয়েছে।

শুক্রবার (০১ এপ্রিল) জুমআর নামাজের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন করা হয়েছে।

মজলিসে দাওয়াতুল হক বাংলাদেশের নায়েবে আমীর শাইখুল হাদীস পীরে কামেল আল্লামা মুফতি মনসুরুল হক প্রধান অতিথি থেকে এই মসজিদের উদ্বোধন করেন। এসময় বাগেরহাট জেলা বিএনপির আহবায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিম, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নকিব নজিবুল হক নজু, বাগেরহাট চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি লিয়াকত হোসেন লিটন, কচুয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজ শিকদার, ইজারা পদ্মনগর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সভাপতি সরদার বজলুর রহমান, সভাপতির ছেলে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সরদার জাহিদুল ইসলাম, খাদেমুল ইসলাম পদ্মনগর মাদরাসা ও এতিমখানার মুহতামিম মুফতি মাওলানা ইমরান হোসাইন, ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম খোকনসহ স্থানীয় দুই সহস্রাধিক ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

উদ্যোক্তাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ইজারা ও পদ্মনগর দুই গ্রামের প্রধান মসজিদ ছিল এটি। ২০১৮ সালে এই মসজিদের জমিদাতা সরদার বজলুর রহমানের ছেলে ব্যবসায়ী সরদার জাহিদুল ইসলাম সকলের সম্মতিতে এখানে একটি আধুনিক মসজিদ নির্মাণের উদ্যোগ নেন।

অর্ধশতাধিক শ্রমিকের তিন বছরের চেষ্টায় মসজিদটি নির্মাণ করা হয়। দুই তলা এই মসজিদটির নকশা করেছেন বিল্ডিং ডিজাইনকারী প্রতিষ্ঠান রাশেদুল হাসান এ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটেস-এর স্বত্তাধীকারী স্থাপতি রাশেদুল হাসান। মসজিদটির সামনে রয়েছে প্রশস্ত জায়গা, প্রাকৃতিক আলো-বাতাস প্রবেশের জন্য পর্যাপ্ত সুযোগ রয়েছে। মেঝে করা হয়েছে মার্বেল পাথর দিয়ে। মসজিদের দুই পাশে রাস্তা এবং দুই পাশে স্কুলের মাঠ। এছাড়া মসজিদের সামনে ইসলামী পাঠাগার ও অজু খানা রয়েছে। মসজিদের অদূরে করা হয়েছে খাদেমুল ইসলাম পদ্মনগর মাদরাসা ও এতিমখানা। যেখানে হিফজ, কিরিআত ও কওমি শিক্ষা চালু রয়েছে। বর্তমানে মাদরাসাটিতে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে।

খাদেমুল ইসলাম পদ্মনগর মাদরাসা ও এতিমখানার মুহতামিম মুফতি মাওলানা ইমরান হোসাইন বলেন, এই মসজিদটি অনেক পুরোনো। পুরোনো এই মসজিদকে ভেঙে নতুনভাবে তৈরি করা হয়েছে। মসজিদের জমিদাতা বজলুর রহমান সরদারের ছেলে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সরদার জাহিদুল ইসলাম নিজস্ব অর্থায়নের এই মসজিদ ও মাদরাসা তৈরি করেছেন। এখানে গরীব ও এতিম শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে পড়ার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া এই মসজিদকে কেন্দ্র করে এখানে ইসলামী শিক্ষা ও সংস্কৃতি চর্চার উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। তবে এই মসজিদ নির্মাণে কী পরিমাণ অর্থ ব্যয় হয়েছে এস বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি ব্যবসায়ী সরদার জাহিদুল ইসলাম।

news24bd.tv/ তৌহিদ

;