‘মৃত্যুতে আমি নির্দোষ প্রমাণ হতে পারি’ লিখে নারী চিকিৎসকের আত্মহত্যা
‘মৃত্যুতে আমি নির্দোষ প্রমাণ হতে পারি’ লিখে নারী চিকিৎসকের আত্মহত্যা

সংগৃহীত ছবি

‘মৃত্যুতে আমি নির্দোষ প্রমাণ হতে পারি’ লিখে নারী চিকিৎসকের আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক

‘আমার মৃত্যুতে আমার নির্দোষ প্রমাণ হতে পারে। দয়া করে নিরপরাধ ডাক্তারদের হয়রানি করবেন না’ এমন সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যা করেছেন এক নারী চিকিৎসক। মঙ্গলবার  ভারতের রাজস্থানের দৌসা জেলায় ডা. অর্চনা শর্মা নামে নারী চিকিৎসকটি  আত্মহত্যা করেন।

ডা. অর্চনা শর্মা রাজস্থানের দৌসার একটি বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন।

প্রসূতি নারীর মৃত্যুর পর তার পরিবারের সদস্যরা বেসরকারি হাসপাতালটির গাফিলতির অভিযোগ তোলেন এবং ডাক্তার অর্চনা শর্মার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় হত্যার অভিযোগ দায়ের করেন। এ ঘটনার পর মঙ্গলবার তিনি  সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যা করেন।

সুইসাইড নোটে অর্চনা শর্মা তার মৃত্যুর পরে তার স্বামী ও সন্তানদের হয়রানি না করার জন্য আবেদন জানিয়েছেন।  

অর্চনা শর্মার সুইসাইড নোটটি নিচে তুলে ধার হলো :
‘আমি আমার স্বামী এবং সন্তানদের অনেক ভালোবাসি। আমার মৃত্যুর পর দয়া করে তাদের হয়রানি করবেন না। আমি কোনো ভুল করিনি, কাউকে হত্যা করিনি। পিপিএইচ (সন্তান জন্মদানে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ) একটি পরিচিত জটিলতা। এর জন্য ডাক্তারদের এত হয়রানি করা বন্ধ করুন। আমার মৃত্যু আমাকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারে। নিরপরাধ ডাক্তারদের হয়রানি করবেন না। দয়া করে। ভালোবাসি আপনাদের। আমার বাচ্চাদের মায়ের অনুপস্থিতি অনুভব করতে দেবেন না। '

এই ঘটনার পর বুধবার দৌসার লালসোট থানার অফিসার ইনচার্জ অঙ্কিত চৌধুরীকে ডা. অর্চনা শর্মা আত্মহত্যার ঘটনায় বরখাস্ত করা হয়েছে। এদিকে, বুধবার রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট বলেন, দৌসায় চিকিৎসকের আত্মহত্যার বিষয়ে পুলিশ অবাধ ও সুষ্ঠু তদন্ত করছে।  

সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে, এএনআই।

news24bd.tv/আলী

;