পরকীয়া সহ্য করতে না পেরে মদ খাইয়ে স্ত্রীকে হত্যা
পরকীয়া সহ্য করতে না পেরে মদ খাইয়ে স্ত্রীকে হত্যা

সংগৃহীত ছবি

পরকীয়া সহ্য করতে না পেরে মদ খাইয়ে স্ত্রীকে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

স্ত্রীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক আগে থেকেই জানতেন সানি। এই পরকীয়া প্রেম নিয়ে তৃতীয় স্ত্রী রানির সঙ্গে বেশ কিয়েকদিন ধরেই ঝগড়া চলছিল স্বামী সানির। সানি অনেক চেষ্টাও করেন স্ত্রীকে পরকীয়া প্রেম ছাড়াতে। এতকিছুর মধ্যে এ নিয়ে রোববার (৩ এপ্রিল) মদের আসরে ফের দু’জনের মধ্যে ঝগড়া হয়।

এ সময় মাতাল অবস্থায় স্ত্রীকে শাবল দিয়ে মেরে হত্যা করেন স্বামী। রোববার (৩ এপ্রিল) রাতে পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলায় এ ঘটনা ঘটে। খবর আনন্দবাজার।

দেশটির রাজ্য পুলিশ জানায়, স্ত্রীকে হত্যার পর মৃতদেহ রেলের পরিত্যক্ত একটি ঘরে ফেলে দেয় সানি। এরপর সোমবার সকালে সানি নিজেই পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রানির মরদেহ উদ্ধার করে।

এই বিষয়ে অভিযুক্ত স্বামী বলেন, রানি আমার তৃতীয় স্ত্রী। ওর বাপের বাড়ি মানকরে। সেখানে অন্য একজনের সঙ্গে রানির সম্পর্ক ছিল। তাই ও বার বার বাপের বাড়ি চলে যেত। আমি অনেক বুঝিয়েছিলাম। রোববার রাতে রানি ও আমি মদ খেয়েছিল, আমি নেশার ঘোরে ছিলাম। পুলিশ সানির বাড়িতে গিয়ে মদের বোতল এবং গ্লাস উদ্ধার করেছে।

সানির প্রথম স্ত্রীর মেয়ে পল্লবী জানান, রোববার রাতে বাবা মদ খেয়েছিল। মাকেও মদ খাইয়েছিল। বাবা মাকে বোঝাচ্ছিল। তারপর শাবল দিয়ে মারে।
news24bd.tv/আলী