রাতে মুখোমুখি রিয়াল-চেলসি
রাতে মুখোমুখি রিয়াল-চেলসি

সংগৃহীত ছবি

রাতে মুখোমুখি রিয়াল-চেলসি

অনলাইন ডেস্ক

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চেলসির মুখোমুখি হবে রিয়াল মাদ্রিদ। গেলবার এই চেলসির কাছে হেরেই আসর থেকে বিদায় নিয়েছিলো রিয়াল। তাই রিয়ালের জন্য ম্যাচটি প্রতিশোধের আর চেলসির অমরত্ব ধরে রাখার। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ম্যাচটি শুরু হবে আজ বুধবার রাত ১টায়।

একই সময় রাতের কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে ভিয়ারিয়াল ও বায়ার্ন মিউনিখ।

ম্যাচটা প্রতিশোধের নাকি অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার লড়াই নাকি আনচেলত্বির জন্য চাকরি বাঁচানোর শেষ সুযোগ। ঘুড়ে ফিরে এই ম্যাচের আগে চেলসি থেকে ঢেড় পিছিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ। সেটা মাঠের পারফর্মেন্সে হোক কিংবা অতীত পরিসংখ্যান।

কিংবা মাঠের বাইরের সাম্প্রতিক দলটির দোদুল্যমান অবস্থা।  

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দল রিয়াল ১৩ বার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতলেও চেলসিকে এই টুর্নামেন্টে হারাতে পারেনি তারা।

এদিকে কোভিড পজেটিভ হওয়ায় কোচ আনচেলত্তির লন্ডন সফর নিশ্চিত নয়। আর এটাও যানা এই ম্যাচের ফলাফলের উপরই নির্ভর করছে আগামী মৌসুমে তিনি গ্যালাক্টিকোদের কোচ হিসেবে থাকছেন কিনা। যেখানে সামনে লা লিগা ছাড়াও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের সুবর্ণ সুযোগ রিয়ালের। কারণ, ২০১৫ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের পর রিয়াল মাদ্রিদ থেকে বরখাস্ত হয়েছিলেন আনচেলত্তি।

তবে মনে আশা রিয়ালের কারণ দুর্দান্ত ফর্মে থাকা করিম বেনজেমা চোট কাটিয়ে, মদরিচ, ভিনিসিয়াস জুনিয়ররা রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে। আর রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কর্তোয়া লড়াইটা করতে চান সদ্য সাবেক হওয়া ক্লাবের বিপক্ষে সেটা গ্যালারি থেকে জয়ধ্বনী আসুক কিংবা দুয়োধ্বনী।

মাঠের বাইরে কঠিন সময় পার করছে চেলসি। দলের রুশ মালিক আব্রামোভিচ বেকায়দায় আছেন। তার মূল কারণ রাশিয়ার ইউক্রেনে আগ্রাসন। চেলসি ক্লাব বিক্রির কথাও বলেছেন তিনি। তবে মাঠের পারফরম্যান্সে তার প্রভাব খুব একটা পড়েনি। তারপরও দলটি আসরের  বর্তমান চ্যাম্পিয়ন।

চেলসি রোমেলু লুকাকুকে দলে ভিড়িয়ে শক্তি বাড়িয়েছে আরো। তবে নিজেদের শেষ ম্যাচের হারটা যে ছিলো বেশ বড় ব্যবধানে সেটা এখনো তাজা ব্লুজ শিবিরে, যেটা ভুলেই নামতে হবে মাঠে।

এদিকে রাতের অন্য ম্যাচে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে মাঠে নামবে  ভিলারিয়ালের। গত বছর ইউরোপা কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভিলারিয়াল। এবার তারা প্রিকোয়ার্টার ফাইনালে হারিয়েছে য়্যুভেন্তাসকেও। তবে তাদের শক্তি নিশ্চিতভাবেই ছয় বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়ন বায়ার্নের চেয়ে আনেক কম।

News24bd.tv/রিমু