মাদ্রাসা ছাত্রের পুরুষাঙ্গ কর্তন, কারাগারে জুঁই হিজড়া
মাদ্রাসা ছাত্রের পুরুষাঙ্গ কর্তন, কারাগারে জুঁই হিজড়া

হিজড়া জুঁই আক্তার

মাদ্রাসা ছাত্রের পুরুষাঙ্গ কর্তন, কারাগারে জুঁই হিজড়া

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরে মাদ্রাসাছাত্রের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলার মামলায় প্রধান অভিযুক্ত হিজড়া জুঁই আক্তারকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। দুপুরে জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালদের বিচারত ফয়সাল আল মামুন এই আদেশ দেন। এর আগে মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার খোঁয়াজপুর থেকে জুঁইকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল জানান, গত বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) সকালে মাদারীপুর সদর উপজেলার মঠের বাজার থেকে ১৮ বছরের মাদ্রাসাছাত্র ইয়াছিন আরাফাতকে জোড় করে মাইক্রোবাসে তুলে স্থানীয় হিজড়াদের ভ্যানচালক নুরু বকতি।

পরে হিজড়া জুঁইয়ের নেতৃত্বে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় খুলনার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে। সেখানে ওই কিশোরকে অচেতন করে পুরুষাঙ্গ ফেলার অভিযোগ ওঠে।  

পরে অবস্থা খারাপ হওয়ায় রোববার (০৩ এপ্রিল) সকালে একটি প্রাইভেটকারে ইয়াছিনকে মাদারীপুর শহরের পানিছত্র এলাকায় রেখে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এই ঘটনার ইয়াছিনের বাবা রেজাউল মোড়লে জু্ইঁকে প্রধান আসামী অজ্ঞাত বেশ কয়েকজনের নামে একটি মামলা করেন। পরে অভিযান চালিয়ে জুঁইকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরোও জানান, এই অমানবিক ঘটনার সাথে স্থানীয় ভ্যানচালক নুরু বকতি, খুলনার হিজড়া স্বপ্নাসহ আরও একজন জড়িত। তাদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

news24bd.tv/আলী