নরসিংদীতে এক ডজনেরও বেশি ব্যাটারি ও সীসা তৈরির কারখানা

নরসিংদীতে এক ডজনেরও বেশি ব্যাটারি ও সীসা তৈরির কারখানা

হৃদয় খান

গেলো ৪ বছরে নরসিংদীতে গড়ে উঠেছে এক ডজনেরও বেশি ব্যাটারি ও সীসা তৈরির কারখানা। এসব কারখানার বেশিরভাগেরই মালিক চীনা নাগরিকরা। যাদের নেই পরিবেশের ছাড়পত্র। এসব কারখানার বিষাক্ত গ্যাসে একদিকে যেমন বিরুপ প্রভাব পড়েছে প্রকৃতি ও পরিবেশের উপর।

অন্যদিকে স্থানীয়রা আক্রান্ত হচ্ছেন নানা রোগে। তবে এসব কারখানার বিরুদ্ধে নিয়মিত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস পরিবেশ অধিদপ্তরের।

নরসিংদী ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশের এই কারখানাটি একসময় টেক্সটাইল মিল ছিল। গত দেড়বছর ধরে এখানে ব্যাটারির কাঁচামাল সীসা তৈরি করছেন চীনা নাগরিকরা। কিন্তু তাদের নেই সরকারি কোনো দপ্তরের অনুমোদন।

নিউজ টোয়েন্টিফোর এর ক্যামেরা দেখে কারখানার ভেতর থেকেই গেইটে তালা লাগিয়ে দেয় এক চীনা নাগরিক। গেইটের ওপাশ থেকে কথা হয় চীনা মালিকের বাংলাদেশি প্রতিনিধির সাথে। জানালেন, চীনাদের নিষেধের কারনে ভেতরে প্রবেশ করা যাবে না।

শুধু এই কারখানাই নয়, এরকম আরো কমপক্ষে ১২ টি ব্যাটারি ও সীসা তৈরির কারখানা গড়ে তোলা হয়েছে নরসিংদীতে। যার বেশিরভাগেই নেই পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র। কারখানাগুলোর ভিতরেও স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে কাজ করে চলেছেন বাংলাদেশি শ্রমিকেরা। আর বিষাক্ত এই সীসার ধোয়ায় ফসলী জমির ক্ষয়ক্ষতি সহ নানা কঠিন ও জটিল রোগে ভোগছেন এলাকাবাসী।

পরিবেশের জন্য মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ এসব কারখানা গড়ে উঠার পেছনে প্রশাসনের কঠোর নজরদারির অভাবকেই দোষছেন স্থানীয়রা। তবে এসব কারখানার বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর পাশাপাশি কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস পরিবেশ অধিদপ্তরের। দ্রুত এসব কারখানার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ এমনটাই প্রত্যাশা স্থানীয়দের।

news24bd.tv/আলী