মধ্যরাতে হেলিকপ্টারে বাড়ি ছাড়লেন ইমরান, কোথায় গেলেন?
মধ্যরাতে হেলিকপ্টারে বাড়ি ছাড়লেন ইমরান, কোথায় গেলেন?

ফাইল ছবি

মধ্যরাতে হেলিকপ্টারে বাড়ি ছাড়লেন ইমরান, কোথায় গেলেন?

অনলাইন ডেস্ক

ইনিংসের শেষ বলেই বিরোধিদের হাতে বন্দি হলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। অনাস্থা ভোটে হারের পরপরই শনিবার মধ্যরাতে একটি হেলিকপ্টারে চেপে বাড়ি ছাড়েন ইমরান খান। তিনি ইসলামাবাদের বানি গালায় গিয়েছেন বলে পাক সংবাদ মাধ্যমের দাবি। যদিও ইমরান খান এ বিষয়ে নিজে কিছু জানাননি।

২২ গজের ক্রিকেট পিচ দাঁপিয়ে বেড়ানো খেলোয়াড় ইমরান রাজনৈতিক জীবনেও ছক্কা মেরেছেন বেশ।  রাজনৈতিক দল গঠন করে ক্ষমতায় আসেন ২২ বছরের মাথায়। হন পাকিস্তানের ২২ তম প্রধানমন্ত্রী। পরিসংখ্যান বলছে, ২২ যেন ইমরানের জন্য জাদুকরি সংখ্যা। তবে শেষ মেষ ২০২২ এর খরা কাটাতে ব্যার্থ তুখুড় এই রাজনীতিবিদ।

খেলার মাঠ থেকে সোজা রাজনীতির ময়দান। ১৯৯৬ সালে তেহরিক-ই-ইনসাফ রাজনৈতিক দল গঠন করে সবাইকে চমকে দেন ইমরান খান। ১৯৯৯ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত দেশটির ক্ষমতায় থাকা স্বৈরশাসক পারভেজ মোশাররফের ব্যাপক সমালোচনায় মুখর ছিলেন তিনি। রাজনীতির মাঠে শুরুতে ইমরান খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। ২০০২ সালের আগ পর্যন্ত তাঁর দল সংসদে কোনো আসন না পেলেও দলের পরিচিতি বাড়াতে ক্রিকেটার ইমেজটাই কাজে লাগান ইমরান খান।

২০১৮ সালের জুলাইয়ের নির্বাচনে ছক্কা মারতে ভুল করেননি ইমরান। তাঁর দল পিটিআই ২৭২টির মধ্যে ১১৭টি আসন পেয়ে রীতিমতো তাক লাগিয়ে দেয়। এরপর ২২ বছরের মাথায় ২০১৮ সালে ক্ষমতায় এসে হন দেশের ২২ তম প্রধানমন্ত্রী। যদিও রাজনৈতিক বিশ্লেষকই বলে আসছিলেন, এর সবই সামরিক উর্দিধারীদের ক্যারিশমা।

ইমরান ক্ষমতায় এসেছিলেন দুর্নীতি ও দুঃশাসনের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণা করে। তবে গেল সাড়ে তিন বছরে এ ক্ষেত্রে দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি নেই।

বিরোধিদের অভিযোগ, ইমরান দুর্নীতিবাজ পূর্বসূরিদের জুতোয় পা রেখেই দেশ শাসন করেছেন। বিরোধী দলকে অগ্রাহ্য করেছেন। জোটসঙ্গীদের উপেক্ষা করে এককভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দেশের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারেও কোনো টেকসই পদক্ষেপ নিতে পারেননি।

অনেই মনে করছেন পুতিনকে আলিঙ্গন করেই ইমরান খান চূড়ান্তভাবে নিজের ভাগ্যকে ফাঁদে ফেলেছেন। ইমরান খান ও তাঁর দলের লোকজনের দাবি, সরকার পতনের জন্য বিরোধীরা বিদেশিদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। আঙ্গুল তুলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের দিকে। এর মাঝে বিদেশ থেকে আমদানি করা কোনো সরকার মানবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি।

news24bd.tv/রিমু