আগামী বছর জুনের মধ্যেই পায়রা বন্দরের নির্মাণ কাজ শেষ করতে চায় কর্তৃপক্ষ

আগামী বছর জুনের মধ্যেই পায়রা বন্দরের নির্মাণ কাজ শেষ করতে চায় কর্তৃপক্ষ

ডেস্ক রিপোর্ট

নির্ধারিত সময়ে বাস্তবায়ন না করতে পারলেও আগামী বছর জুনের মধ্যেই পায়রা বন্দরের নির্মাণ কাজ শেষ করতে চায় বন্দর কর্তৃপক্ষ। তাদের প্রত্যাশা পদ্মাসেতুকে ঘিরে জেগে উঠতে থাকা দক্ষিণাঞ্চল হবে বিনিয়োগের জন্য দেশের সবচেয়ে আকর্ষনীয় অঞ্চল। একই সঙ্গে দেশের সবচেয়ে আধুনিক এই বন্দর কর্ম সংস্থান তৈরি করবে কয়েক লাখ মানুষের।

অর্ধযুগ আগে চীন থেকে আসা পদ্মাসেতুর পাথর খালাসের মধ্য দিয়ে কার্যক্রমে আসে দেশের তৃতীয় সমুদ্রবন্দর পায়রা।

তবে পূণাঙ্গ বন্দর হিসেবে গড়ে উঠতে এখনও বেশ কিছু কাজ বাকি রয়েছে বন্দরটির। আর সে লক্ষ্যে চলছে টার্মিনাল, জেটি নির্মাণ এবং চ্যানেলের গভীরতা বাড়ানোর কাজ।

পায়রা বন্দরের মতই সরকারের অগ্রাধিকার মূলক প্রকল্পগুলোর অন্যতম গলাচিপা নদীর পাশে অবস্থিত পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র। এর কয়লা খালাসের কাজেও ব্যবহার হয় এই বন্দর। বিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং বন্দর এ অঞ্চলকে দেশের ব্যাবসা বণিজ্যের প্রাণকেন্দ্রে পরিণত করবে এমন প্রত্যাশা বন্দর কর্তৃপক্ষের। দেশে আমদানী করা পণ্যের অন্তত ৩০ ভাগ এই বন্দর দিয়ে আনার পরিকল্পণা করছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত