স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে মার্কিন ডলার 

স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে মার্কিন ডলার 

সুলতান আহমেদ

স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে মার্কিন ডলার। খোলা বাজারে যা এখন ৯২ টাকা। ব্যাংকগুলোও হিমশীম খাচ্ছে বাড়তি ডলারের যোগান দিতে। ব্যাংকাররা বলছেন, বিশ্ববাজারে তেলসহ বিভিন্ন পণ্যের দাম বাড়ায় চাহিদা বেড়েছে ডলারের।

যার প্রভাবে দাম বাড়ছে আমদানি পণ্যের। তবে কেন্দ্রিয় ব্যাংক বলছে, ডলারের দাম সহনীয় রাখতে সর্বোচ্চ চেষ্টা রয়েছে তাদের।  

দেশের বাইরে পড়তে যাওয়া এই শিক্ষার্থী ডলার এনডোজ করতে এসেছেন গুলশানের একটি মানি এক্সচেঞ্জে। তার ধারণাই ছিলোনা এক লক্ষ টাকার বিনিময়ে মিলবে মাত্র এক হাজার ৮৯ ডলার।

করোনা মহামারি স্বাভাবিক হয়ে উঠায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চলাচল বেড়েছে মানুষের। তাতে বেড়েছে ডলারের চাহিদা, তবে সেই তুলনায় আমদানি নেই ডলারের। গেলো কয়েক মাসে কমেছে বিদেশ থেকে আসা রেমিট্যান্সও। যার ফলে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় এই ‍মুদ্রার দাম এখন প্রায় ৯২ টাকা।

ব্যাংকগুলোতেও চলছে ডলারের সংকট। বেধে দেয়া দরের চেয়ে বাড়তি দাম দিয়েও চাহিদানুযায়ী মিলছেনা ডলার। অতিরিক্ত আমদানি উস্কে দিচ্ছে এই সংকট। হিসেব বলছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে আমদানি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৪৬ শতাংশ। অন্যদিকে নয় মাসে রপ্তানি প্রবৃদ্ধি ৩৩ শতাংশ। সব মিলে বাণিজ্য ঘাটতি দাড়িয়েছে ১,৫৬১ কোটি ডলার। ব্যাংকাররা বলছেন, এমন পরিস্থিতিতে কেন্দ্রিয় ব্যাংকের উচিত আরো বেশি ডলার সরবরাহ করা।

কেন্দ্রিয় ব্যাংকের কাছে ডলারের দাম নিয়ন্ত্রণের জোর দাবি করছেন আমদানিকারকরা। নিয়ন্ত্রক ব্যাংকটি অবশ্য বলছে, সংকট নিরসনে বাড়তি ডলারের যোগান দিতে প্রস্তুতি রয়েছে তাদের।

ঈদ সামনে রেখে দেশে বাড়তি রেমিট্যান্স আসলে ডলারের দাম কিছুটা কমে আসার আশাবাদ জানালেন ব্যাংকাররা।

news24bd.tv/আলী