অবিলম্বে নির্বাচনের দাবি ইমরান খানের
অবিলম্বে নির্বাচনের দাবি ইমরান খানের

সংগৃহীত ছবি

অবিলম্বে নির্বাচনের দাবি ইমরান খানের

অনলাইন ডেস্ক

ক্ষমতাচ্যুতির পর পাকিস্তানে অবিলম্বে নির্বাচন চেয়েছেন দেশটির সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আজ মঙ্গলবার একটি টুইট বার্তায় ইমরান এমনটি বলেন। কিন্তু ক্ষমতাচ্যুতির আগেও ইমরান খান দাবি করেন, তাকে ক্ষমতা থেকে অপসারণ একটি বিদেশি ষড়যন্ত্রের অংশ। তিনি শাহবাজকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মেনে নিতে অস্বীকার করেন।

মিয়ান মুহাম্মদ শেহবাজ শরীফ দেশের জাতীয় পরিষদে নির্বাচিত হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর সোমবার সন্ধ্যায় পাকিস্তানের ২৩তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন। এরপরই আজ মঙ্গলবার এই টুইট করেন ইমরান খান।

পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেন, আমরা অবিলম্বে নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি। কারণ, এটিই এগিয়ে যাওয়ার একমাত্র উপায়। সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণ কাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চায়। তাদেরকে সিদ্ধান্ত নিতে দিতে হবে। টুইটে তিনি আরও বলেন, আমি চাই আমাদের সমস্ত মানুষ আসুক, কারণ পাকিস্তান একটি স্বাধীন, সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসাবে তৈরি হয়েছিল বিদেশী শক্তির পুতুল রাষ্ট্র হিসাবে নয়। রোববারের রাতের দিকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর সমর্থনে লোকজন বেরিয়ে আসে। তখন তারা তৎকালীন বিরোধী দলের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয় এবং শেষপর্যন্ত ইমরান খানকে সমর্থন করার অঙ্গীকার করে।

উল্লেখ্য, সোমবার প্রতিনিধি পরিষদে ১৭৪ ভোট পেয়ে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন শাহবাজ। ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য যেখানে ১৭২ জন সদস্যের সমর্থন লাগে, সেখানে তিনি পেয়েছেন ১৭৪ ভোট। মূলত সংবিধান অনুযায়ী ২০২৩ সালের আগস্টে পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই অনাস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতা ছাড়তে হয়েছে ইমরান খানকে।

সূত্র : এনডিটিভি

news24bd.tv/এমি-জান্নাত     

;