এবারের বৈশাখী আয়োজন শেষ দুপুর দুইটার মধ্যে
এবারের বৈশাখী আয়োজন শেষ দুপুর দুইটার মধ্যে

এবারের বৈশাখী আয়োজন শেষ দুপুর দুইটার মধ্যে

মাসুদা লাবনী

রমজানের কারণে এবারের বৈশাখী আয়োজন শেষ করতে হবে দুপুর দুইটার মধ্যে। দুপুরে রমনা বটমূল পরিদর্শনে এসে এ কথা জানান, ডিএমপি কমিশনার। বলেন, জঙ্গি তৎপরতার বিষয়ে বেশ কিছু প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশকে সতর্ক করেছে। তাই পহেলা বৈশাখে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান ডিএমপি কমিশনার।

দুয়ারে কড়া নাড়ছে বঙ্গাব্দ ১৪২৯। পহেলা বৈশাখে নতুন বছরকে বরণ করে নিতে তাই চলছে নানা ধরনের প্রস্তুতি। গেল দুই বছর করোনার কারণে বাংলা বর্ষবরণের উন্মুক্ত আয়োজন হয়নি। এ বছর তাই মঙ্গল শোভাযাত্রা, রমনা বটমূলের ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি চলছে আগে থেকেই।

দুপুরে সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শনে রমনা বটমূল এলাকায় যান ডিএমপি কমিশনার। এসময় অনুষ্ঠান এলাকায় যেকোনো হামলা হলে কী ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে তার মহড়া করা হয়। এতে অংশ নেয় বোম ডিসপোজাল ইউনিট, সোয়াট, ডগ স্কোয়াড।

ডিএমপি কমিশনার জানান, রোজার কারণে এবারের পহেলা বৈশাখের উন্মুক্ত অনুষ্ঠান দুপুর দুইটার মধ্যে শেষ করতে হবে।

বিভিন্ন দেশের জঙ্গি তৎপরতার সতর্কবার্তা মাথায় রেখে সার্বিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। বলেন, পুরো এলাকায় শতাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে, নেওয়া হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

পহেলা বৈশাখ সরকারি ছুটি থাকলেও মানুষের চলাচল নির্বিঘ্ন করতে নিয়ন্ত্রণ করা হবে যান চলাচল।  বন্ধ থাকবে বেশ কিছু সড়ক।

news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর

;