বেআইনি পার্টি করায় প্রধানমন্ত্রীকে জরিমানা করলো পুলিশ 
বেআইনি পার্টি করায় প্রধানমন্ত্রীকে জরিমানা করলো পুলিশ 

১৫ মে ২০২০, ডাউনিং স্ট্রিট কর্মকর্তাদের সঙ্গে পার্টিতে বরিস ও তার স্ত্রী। ছবি সংগৃহীত

বেআইনি পার্টি করায় প্রধানমন্ত্রীকে জরিমানা করলো পুলিশ 

অনলাইন ডেস্ক

করোনা মহামারির মধ্যে লকডাউন চলাকালে পার্টি করায় জরিমানার মুখে পড়তে চলেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও অর্থমন্ত্রী রিশি সুনাক। জরিমানা গুনতে হবে বরিসের স্ত্রী ক্যারি জনসনকেও। মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) বিট্রিশ গণমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ব্রিটিশ কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন, উপরোক্ত তিনজনের কাছে এরই মধ্যে লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে জরিমানার নোটিশ পৌঁছে গেছে।

লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের বরাতে সিএনএন জানিয়েছে, গোটা যুক্তরাজ্যে কোভিড লকডাউন চলার সময় ডাউনিং স্ট্রিট ও হোয়াইট হলে বেআইনি পার্টি করা হয়েছে বলে যে খবর ছড়িয়েছিল গত বছর, তার তদন্তে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় জরিমানা করা হয়েছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীকে।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই পার্টি ইস্যুতে অন্তত ৫০ জনকে জরিমানা করা হয়েছে। সেদিন বরিস জনসন ও রিশি সুনাক তাদেরই সরকারের তৈরি আইন লঙ্ঘন করে জনসমাগমে যোগ দিয়েছিলেন বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীর মুখপাত্র জানান, জরিমানার বিষয়টি কোন ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাদের সে বিষয়ে এখনো জানানো হয়নি।

২০২০ সালে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও বাসভবন ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে কয়েক দফায় পার্টির আয়োজন করা হয়। যদিও সে সময় সাধারণ মানুষের জন্য কোথাও সমবেত হওয়া দূরের কথা, সর্বত্র সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নির্দেশনা ছিল।

news24bd.tv/আলী

;