বিস্কুট খাওয়ানোর কথা বলে মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ 
বিস্কুট খাওয়ানোর কথা বলে মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ 

সংগৃহীত ছবি

বিস্কুট খাওয়ানোর কথা বলে মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ 

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে বিস্কুট খাওয়ানোর কথা বলে মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণি পড়ুয়া এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে জাহাঙ্গীর আলম নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। বুধবার রাতে উপজেলার উদালিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার জাহাঙ্গীর আলম ওই এলাকার আমির আহম্মদের ছেলে।  বৃহস্পতিবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেন র‍্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নুরুল আবছার।

র‍্যাব জানায়, ভুক্তভোগী শিশু স্থানীয় একটি মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী। মঙ্গলবার বিকেলে বাড়ির সামনে লবণ বিক্রেতা এলে তাকে নিয়ে লবণ কিনতে যান মা এবং ১০ কেজি লবণ ক্রয় করেন। লবণ বিক্রেতা আসলে তাকে খবর দিতে আগে থেকেই  বলে রেখেছিলেন একই বাড়ির জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী। তাই মা’র কথামতো তাকে ডাকতে যায় ভুক্তভোগী শিশু। ওই সময় একা ঘরে অবস্থান করা জাহাঙ্গীর শিশুটিকে নিজের কাছে ডেকে নেন এবং বিস্কুট দেয়ার কথা বলে রান্নাঘরে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

পরে শিশুটির মা তাকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে ডাকাডাকি করতে থাকলে একপর্যায়ে কান্না করতে করতে জাহাঙ্গীরের রান্নাঘর থেকে বের হয় সে। এরপর মায়ের কাছে পুরো ঘটনার বর্ণনা করে। এরপরই তাকে হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে শিশুটি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

র‍্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক  নুরুল আবছার বলেন, শিশুর মায়ের করা মামলায় জাহাঙ্গীর আলমকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর ধর্ষণের ঘটনা স্বীকার করেন তিনি। পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নিতে তাকে হাটহাজারী মডলে থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

;