ভুটানের গড়িমসিতে সাত বছরেও বিবিআইএন চুক্তি বাস্তবায়ন হয়নি
ভুটানের গড়িমসিতে সাত বছরেও বিবিআইএন চুক্তি বাস্তবায়ন হয়নি

ভুটানের গড়িমসিতে সাত বছরেও বিবিআইএন চুক্তি বাস্তবায়ন হয়নি

শাহনাজ ইয়াসমিন

ভুটানের গড়িমসিতে সাত বছরেও আলোর মুখ দেখেনি সড়কপথে আঞ্চলিক যোগাযোগের বিবিআইএন চুক্তির বাস্তবায়ন। তাই দেশটিকে বাদ দিয়েই নতুন ত্রিদেশীয় বিআইএন চুক্তি করতে সম্মত বাংলাদেশ, ভারত ও নেপাল। সব ঠিক থাকলে চলতি বছরের শেষেই বিআইএন যাত্রা শুরু করবে বলে নিউজ টোয়েন্টিফোরকে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন সচিব নজরুল ইসলাম।

ভাড়া নির্ধারণ, রুট পারমিটসহ অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা শেষে যত দ্রুত সম্ভব শুরু হবে যান চলাচল।

ত্রিদেশীয় মোটর ভেহিক্যাল এগ্রিমেন্টর আলোকে বাংলাদেশ-ভারত-নেপালের সড়কে চলতে পারবে দেশগুলোর মোটরযান। ঢাকা থেকে পণ্য ও যাত্রীবাহী গাড়ি যেমন অবাধে ভারতে আসবে আবার ভারত হয়ে তা নেপালেও যেতে পারবে। তিন দেশেই পরস্পরের সড়ক পথ ব্যবহার করতে পারবে নিদির্ষ্ট প্রটোকলের মাধ্যমে।

সড়ক সচিব মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, এরে আগেই পরীক্ষামূলকভাবে কোলকাতা থেকে ঢাকা হয়ে ত্রিপুরার আগরতলায় গিয়েছে যাত্রীবাহী গাড়ি এবং মালবাহী ট্রাক।

কিন্তু ২০১৫ সালের ১৫ জুন বাংলাদেশ- ভারত-নেপাল এবং ভুটান মধ্যে হয়  চারদেশীয় চুক্তি বিবিআইএন।  কিন্তু সাত বছর ধরে ভূটানের দ্বিধা দ্বন্দ্বে আর এগোয়নি এই চুক্তি।  তা্ই ভূটানকে বাদ দিয়ে  এবার  হচ্ছে ত্রিদেশীয় চুক্তি-বিআইএন। ভুটানের তরফ থেকে অবশ্য এই বিবিআইন প্রকল্পটিতে যোগ নো দেওয়ার কারণ হিসেবে দেখানো হয়েছে অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক ঐক্যমতের অভাব।

সড়ক সচিব জানান, চুক্তির প্রস্তাবে ভবিষ্যতে এই সড়কপথে অন্য যেকোনো দেশ যুক্ত হওয়ার সুযোগ রাখা হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী, তিন দেশের মধ্যে চলাচলে রুট পারমিট নিতে হবে। এক দেশ থেকে আরেক দেশে যাওয়ার সময় কোনো যাত্রী বা মালামাল তোলা যাবে না। তিন বছর পরপর এই চুক্তি নবায়ন হবে এবং কোনো দেশ চাইলে ছয় মাসের নোটিশে চুক্তি থেকে প্রত্যাহার করে নিতে পারবে।

news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর

;