রমজানে প্রকাশ্যে ধুমপানে মানা করায় ইউপি সদস্যকে মারধর 
রমজানে প্রকাশ্যে ধুমপানে মানা করায় ইউপি সদস্যকে মারধর 

সংগৃহীত ছবি

রমজানে প্রকাশ্যে ধুমপানে মানা করায় ইউপি সদস্যকে মারধর 

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের মোংলায় রমজানে প্রকাশ্যে রোজাদারদের সামনে ধূমপান করতে নিষেধ করায় ইউপি মেম্বারকে লাঞ্চিত ও তার ভাইকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে এক পোনা মাছ ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী পোনা মাছ ব্যবসায়ী হানিফ শেখকে (৩৫) ধরে পুলিশে দিয়েছেন।  

এদিকে আহত মেম্বারের ভাই মো. ইস্রাফিল ফকিরকে (৩২) মোংলা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর গ্রেফতারকৃত হানিফ শেখকে মোংলা পুলিশ সোমবার সকালে আদালতে পাঠালে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

মোংলা থানার এসআই অমিত কুমার বিশ্বাস জানান, উপজেলার চিলা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কেয়াবুনিয়া গ্রামে দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে রবিবার ইফতারের আগে প্রকাশ্যে রোজাদারদের সামনে সিগারেট খাচ্ছিলেন পোনা মাছ ব্যবসায়ী হানিফ শেখ (৩৫)। এ সময় সেখানে উপস্থিত ইউপি মেম্বার মো. ইশারাত ফকির (৪২) তাকে রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় প্রকাশে সিগারেট খেতে নিষেধ করেন।  

নিষেধ করায় হানিফ বাকবিণ্ডায় জড়িয়ে মেম্বার ইশারাতকে লাঞ্চিত করার এক পর্যায়ে নৌকার বৈঠা দিয়ে মাথায় আঘাত করেন। এ সময় মেম্বার ইশারাত সরে গেলে মেম্বারের ছোট ভাই মো. ইস্রাফিল ফকিরের (৩২) মাথায় বৈঠার আঘাত লাগে। এতে মাথায় আঘাত লেগে গুরুতর আহত হন ইস্রাফিল। পরে ইস্রাফিলকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  

এ ঘটনায় ক্ষুব্দ গ্রামবাসীরা হানিফকে আটক করে পুলিশে দেয়। রাতেই ইউপি মেম্বার ইশারাত বাদী হয়ে পোনা মাছ ব্যবসায়ী হানিফকে আসামী করে মোংলা থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে সোমবার সকালে পুলিশ হানিফকে বাগেরহাট আদালতে পাঠালে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। পোনা মাছ ব্যবসায়ী হানিফ শেখ মাদকসেবী বলে জানিয়েছে পুলিশ।  
news24bd.tv/আলী