সেই ৫৮ উপহার নিয়ে যা বললেন ইমরান খান
সেই ৫৮ উপহার নিয়ে যা বললেন ইমরান খান

সেই ৫৮ উপহার নিয়ে যা বললেন ইমরান খান

অনলাইন ডেস্ক

ক্ষমতায় থাকাকালে পাওয়া উপহার আত্মসাৎ নিয়ে যে অভিযোগ উঠেছে তা সত্য নয় বলে দাবি করেছেন পাকিস্তানের সদ্য ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ও সরকারি কর্মকর্তাদের কাছ থেকে পাওয়া এ উপহারের বিষয়ে  তিনি বলেন, ‘আমার উপহার দিয়ে আমি কী করব, নিজের কাছে রাখব না কি কোষাগারে জমা দেব; তা আমার ইচ্ছের ওপর নির্ভর করে। তারপরও আমি বলব, যে অভিযোগ উঠেছে, তা সত্য নয়। ’ মঙ্গলবার রাজধানী ইসলামাবাদে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন ইমরান খান।

তিনি বলেন, আমার বাসভবনে একজন প্রেসিডেন্টের পাঠানো একটি উপহার আমি জমা দিয়েছি।

সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সাড়ে তিন বছর ক্ষমতায় থাকার সময় বিভিন্ন রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানের কাছ থেকে ১৪ কোটি রুপি মূল্যমানের ৫৮টি উপহার পান ইমরান খান। নামমাত্র অর্থ দিয়ে অথবা কোনো অর্থ না দিয়েই এসব উপহার নেন তিনি।

তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে সংবাদ সম্মেলনে ইমরান বলেন, ‘আমি তোষাখানা থেকে যা-ই নিয়েছি, নথিভুক্ত করা আছে।

অর্ধেক মূল্য দিয়ে আমি এসব উপহার কিনে নিয়েছি। ’

মেয়াদের সাড়ে তিন বছরের শাসনমালে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) নেতৃত্বাধীন সরকার রাষ্ট্রীয় তোষাখানা থেকে উপহার গ্রহণের বিধিমালায় পরিবর্তন আনেন বলে দাবি করেছেন ইমরান খান। উপহারের দাম ১৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৫০ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়।

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যদি আমি অর্থ বানাতে চাইতাম, তাহলে আমি আমার বাড়িকে অস্থায়ী কার্যালয় ঘোষণা করতে পারতাম; কিন্তু আমি সেটা করিনি। ’

news24bd.tv/তৌহিদ