তেল না সিরাম, চুলের জন্য  বেশি উপকারী কোনটি?
তেল না সিরাম, চুলের জন্য  বেশি উপকারী কোনটি?

ছবি: আনন্দবাজার

তেল না সিরাম, চুলের জন্য  বেশি উপকারী কোনটি?

অনলাইন ডেস্ক

নারী পুরুষ নির্বিশেষে সুন্দর চুল কে না চান। অনেকেই অনেক রকম উপাদান ব্যবহার করেন চুলের স্বাস্থ্য রক্ষায়। সবচেয়ে বহুল ব্যবহৃত এমন দু’টি উপাদান তেল ও সিরাম। চুলের পরিচর্যায় তেলের প্রচলন বহু যুগ আগে থেকেই।

সিরাম সেই তুলনায় নবীন। কিন্তু কোন উপকরণটি বেশি উপকারী চুলের জন্য?

সিরাম

সিরাম চুলের বাইরে এক ধরনের আস্তরণ তৈরি করে, যা বাইরের রোদ, দূষণ ও ধুলোবালি থেকে চুল সুরক্ষিত রাখে। পাশাপাশি সিরাম বজায় রাখে চুলের আর্দ্রতা। কিছু কিছু সিরাম চুল উজ্জ্বল করে, ডগা ভাঙার সমস্যা কমায় ও চুলে জট পড়তে দেয় না।

তেল

ভারত-সহ দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে তেলের প্রচলন শত শত বছর ধরে। বিভিন্ন ফ্যাটি অ্যাসিড ও প্রাকৃতিক উপাদানে ভরপুর তেল চুলের একাধিক সমস্যা উপশমে সহায়তা করে। নারকেল তেল ক্ষতিগ্রস্থ চুলের স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার করতে ও চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে সহায়তা করে। অলিভ অয়েলে ভাল থাকে চুলের গঠন। হোহোবা ও কাঠবাদামের তেল খুশকির সমস্যা কমাতে সহায়তা করে।

কোনটি ভাল?

বিশেষজ্ঞদের মতে, এক এক ব্যক্তির চুল এক এক রকম। তাই প্রয়োজনীয়তাও ব্যক্তিভেদে ভিন্ন। তবে দীর্ঘমেয়াদী ভিত্তিতে চুলের উন্নতি চাইলে, প্রয়োজন অনুসারে নির্দিষ্ট কোনও একটি তেল ব্যবহার করা চুলের পক্ষে সবচেয়ে উপকারী হতে পারে। নিয়মিত তেল মালিশ চুল কন্ডিশন করতে ও চুলে প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করতে সহায়তা করে। তবে নিয়মিত তেল মাখলে নিয়মিত শ্যাম্পু করাও জরুরি। এতে চুলে জমে থাকা অতিরিক্ত তেল দূর হয়ে যায়। অন্য দিকে সিরাম রূপটানের চটজলদি সমাধান হিসেবে বেশ কার্যকর। বিশেষ করে চুলে কোনও ধরনের বাহ্যিক পদার্থ ব্যবহারের আগে সিরাম ব্যবহার করলে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পায় চুল। ফলে যাঁরা নিয়মিত এই ধরনের উপাদান ব্যবহার করেন তাঁদের জন্য বেশি উপকারী সিরাম। সব মিলিয়ে তেল বা সিরাম দু’টি উপাদানই পরিকল্পনা মাফিক ব্যবহার করতে পারলে ভাল থাকবে চুল।

সূত্র : আনন্দবাজার

news24bd.tv/এমি-জান্নাত