দুই শতাধিক গাছ কেটে পাচারের অভিযোগ
দুই শতাধিক গাছ কেটে পাচারের অভিযোগ

দুই শতাধিক গাছ কেটে পাচারের অভিযোগ

মোহাম্মদ আল-আমীন, গাজীপুর

গাজীপুরের শ্রীপুর রেঞ্জের সরকারি বন বিভাগের জমি থেকে প্রকৃতিকভাবে গজানো গজারি বনের গাছ কেটে প্রতিনিয়ত পাচার করছে কিছু অসাধু কাঠ ব্যবসায়ী। বুধবার (২০ এপ্রিল) সকাল উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের শ্রীপুর রেঞ্জের বলদীঘাট বিটের আওতাধীন শিমুলতলী এলাকা থেকে বনের গজারি গাছ কেটে বিক্রি করার সময় স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে গজারি গাছ জব্দ করেছে বন বিভাগ।

এসময় বন বিভাগের সংশ্লিষ্টদের আসার খবরে পালিয়ে যায় অসাধু কাঠ ব্যবসায়ী মো. কলিম উদ্দিন। অভিযুক্ত কলিম উদ্দিন কাওরাইদ ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য।

তিনি দীর্ঘ দিন ধরে বন বিভাগের প্রাকৃতিক গজারি বনের গাছ কেটে পাচার করে আসছে।  

সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, শিমুলতলী গ্রামের জ্বীনের মোড় নামক এলাকা থেকে বনের জমিতে থাকা প্রায় দুই শতাধিক গজারি গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। এই এলাকার আশপাশের অনেক অংশ জুড়ে রয়েছে গজারি বন। ছোট ছোট কফিজ গাছগুলো কেটে মাটিতে ফেলে রাখা হয়েছে।

প্রচারকারীরা বন বিভাগের বাঁধার কারণে কাটা গাছগুলো মাটিতে ফেলে পালিয়ে যায়।

অভিযুক্ত কাঠ ব্যবসায়ী মো. কলিম উদ্দিন বলেন, গাছ কাটার পরপরই বন বিভাগের লোকজন চলে আসে। এর আগেও অনেক সাংবাদিক ঘটনাস্থলে এসেছে। আমারা কাঠ ফেলে চলে এসেছি। ওঁরা কাঠ নিয়ে যাক কোনো সমস্যা নেই।

বলদীঘাট বিটের দায়িত্বে থাকা বিট কর্মকর্তা মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, আমি সকালে আদালতে স্বাক্ষী দিতে চলে আসছি। বিষয়টি জানার পরপরই ফরেস্ট গার্ডদের ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।  

শ্রীপুর রেঞ্জের দায়িত্বে থাকা সদর বিট কর্মকর্তা মীর বজলুল রহমান বলেন, গাছ কেটে পাচারের খবর পাওয়ার পরপরই ঘটনাস্থলে বন বিভাগের লোকজন পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। গাছগুলো জব্দ করে অফিসে নিয়ে আসা হয়েছে।

news24bd.tv/তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক