সালিসে গৃহবধূকে পেটানোর ভিডিও ভাইরাল
সালিসে গৃহবধূকে পেটানোর ভিডিও ভাইরাল

প্রতীকী ছবি

সালিসে গৃহবধূকে পেটানোর ভিডিও ভাইরাল

অনলাইন ডেস্ক

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে এক নারীকে সালিস বৈঠকে বেদম মারধরের ঘটনায় তরিকুল ইসলাম নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ। আজ রোববার সকালে তাকে আটক করা হয়। তিনি উপজেলার নারচী ইউপির ২ নং ওয়ার্ডের সদস্য।  

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পৌর এলাকার উত্তর হিন্দুকান্দি গ্রামের মৃত ইব্রাহিম প্রামানিকের ছেলে আব্দুল খালেক ‘জিনের বাদশা’ নামে পরিচিত।

তিনি নারচী ইউনিয়নের গণকপাড়া গ্রামের কিটু প্রামাণিকের বাড়িতে যাতায়াত করেন, মাঝে মধ্যে  রাত্রীযাপনও করতেন। সেই বাড়িতে বিবাহযোগ্য মেয়ে আছে। স্থানীয়দের ধারণা সেই মেয়ের সঙ্গে আব্দুল খালেকের কোনো অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে। এতে কিটুর স্ত্রী রুবি বেগমের সহযোগিতা রয়েছে।  

এই ধারণার ওপর ভিত্তি করে স্থানীয়রা শনিবার সকাল ১০টায় নারচী ইউনিয়নের গণকপাড়ার কৌডালা মালোপাড়া বিশু প্রামানিকের বাড়িতে সালিস বৈঠকের আয়োজন করে। ওই বৈঠকে ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম রুবি বেগমকে লাঠি দিয়ে পেটান। ঘটনাটির ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।  

এদিকে, আব্দুল খালেকের বাড়ি ছিল ধাপগ্রামে, নদীভাঙনের পর তিনি উত্তর হিন্দুকান্দি বাঁধের কাছে বসবাস শুরু করেন। এরপর বাড়িঘর বিক্রি করে বর্তমানে নারচী ইউনিয়নের গোদাগাড়ি গ্রামে বসতবাড়ি করেছেন।

নারচী ইউপির চেয়ারম্যান আলতাফ আলী বান্টু বলেন, ‘এলাকাবাসীর তোপের মুখে তরিকুল এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তবে অন্য নারীর গায়ে হাত দেওয়াটা ঠিক হয়নি। ’ 

সারিয়াকান্দি থানার উপ-পরিদর্শক নজরুল ইসলাম বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভিডিওটি ভাইরাল হলে ঘটনাটি আমাদের নজরে আসে। এ ঘটনায় ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম এবং রুবি বেগম ও তার মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সারিয়াকান্দি থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা গ্রহণের জন্য প্রস্তুতি চলছে। ’

সারিয়াকান্দি থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, এ বিষয়ে ১৪ জনকে আসামি করে মামলা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে। মামলা গ্রহণের পর তরিকুল মেম্বারকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে বগুড়া জেলার বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হবে।

news24bd.tv/কামরুল 

;