দায়ের কোপে আওয়ামী লীগ নেতার হাত বিচ্ছিন্ন
দায়ের কোপে আওয়ামী লীগ নেতার হাত বিচ্ছিন্ন

প্রতীকী ছবি

দায়ের কোপে আওয়ামী লীগ নেতার হাত বিচ্ছিন্ন

অনলাইন ডেস্ক

সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার আমুড়া ইউনিয়নে এক আওয়ামী লীগ নেতার বাম হাত কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। ওই নেতার নাম ছিনু মিয়া চৌধুরী। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটে।

ছিনু মিয়া চৌধুরী আমুড়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক।

একই ইউনিয়নের শীলঘাট গ্রামের মৃত হিরা মিয়া চৌধুরীর ছেলে তিনি।

ছিনু মিয়া চৌধুরীর ভাতিজা সালমান আহমদ চৌধুরী জানান, আমার চাচা ছিনু মিয়া মাটি কাটার ঠিকাদার। তিনি মাটি কাটা বাবদ আব্দুল মন্নানের কাছে ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা পেতেন। এই পাওনা টাকা আব্দুল মন্নানের কাছে চাইলে তা কাল হয়ে দাঁড়ায় আমার চাচার জন্য। শুক্রবার আমার চাচা ছিনু মিয়া বাড়িতে আসার পথে শীলঘাট কুমারপাড়া এলাকায় আসামাত্র পূর্বপরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে দেশীয় অস্ত্রসজ্জিত হয়ে আব্দুল মন্নান তার ছেলেসহ আরো ৬-৭ জনকে নিয়ে আমার চাচার ওপর হামলা করে। তখন দায়ের কোপে আমার চাচার বাম হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এসময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউট হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় ছিনু মিয়া চৌধুরীর ভাতিজা সালমান আহমদ চৌধুরী একই ইউনিয়নের শীলঘাট রংপুর গ্রামের মৃত হবিব আলীর পুত্র আব্দুল মন্নানকে প্রধান 

এ ঘটনায় ৭ জনের নাম উল্লেখ করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে একজনকে আটক করেছে।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনর রশীদ চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। ঘটনার পর পুলিশ একজনকে আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে।

news24bd.tv/ তৌহিদ

;