যুবককে কুপিয়ে যখম : মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার
যুবককে কুপিয়ে যখম : মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

আসামি গ্রেফতার

যুবককে কুপিয়ে যখম : মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

ইমন চৌধুরী, পিরোজপুর

পিরোজপুর পৌরসভার ব্রাহ্মণকাঠী এলাকায় জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে একজনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হাত ভেঙে দেওয়ার ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি নাসিরকে গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত নাসির উদ্দিন তালুকদার (৫১) পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের ব্রাহ্মণকাঠী এলাকার বেলায়েত হোসেন তালুকদারের পুত্র এবং আহত মোঃ লিয়াকত হোসেন বাচ্চু (৪০) পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের ছোট খলিশাখালি এলাকার রুস্তম আলী হাওলাদারের পুত্র।

শনিবার (২৩ এপ্রিল) রাতে অভিযান চালিয়ে ব্রাহ্মণকাঠী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সদর থানা ওসি আ. জা. মো: মাসুদুজ্জামান।  

মামলার বাদী শাহিন হাওলাদার জানান, আমি ২০১১ সাল থেকে জমি কিনে ভোগ দখল করে আসছিলাম।

আসামিরা বছরখানেক আগে আমার জমি নিয়ে ঝামেলা করায় একটি মামলায় জেল খেটে বের হয়। পরে আমার সাথে একই বিষয় নিয়ে আবারও ঝামেলা করলে নিরাপত্তার স্বার্থে আমি সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করি। পরে গত ১৭ এপ্রিল দুপুরে জমি রক্ষণাবেক্ষণকারী লিয়াকত হোসেন বাচ্চু জমিতে বেড়া দিতে গেলে আসামিরা সব পিলার ভেঙে ফেলে। এতে বাধা প্রদান করলে তাকে খুন করার উদ্দেশ্যে নাসিরের হাতে থাকা দা দিয়ে কোপ দেয়। এতে আহত হওয়ার পরেও অন্য আসামিরা তাদের হাতে থাকা পাইপ দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। এসময় তারা নগদ টাকা ও গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। পরে আসামিরা রাতের অন্ধকারে জমির সীমানা প্রাচীর নির্মাণ সামগ্রী নিয়ে যায়। তার চিৎকারে স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। তিনি বর্তমানে খুলনা চিকিৎসাধীন রয়েছেন।  

পিরোজপুর সদর থানা ওসি আ. জা. মো: মাসুদুজ্জামান জানান, হামলার ঘটনায় মামলা হলে পুলিশ ঘটনার প্রধান আসামি নাসিরকে গ্রেফতার করে। আশা করছি, দ্রুত সময়ের মধ্যে বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো।

প্রসঙ্গত, গত ১৭ এপ্রিল দুপুরে পিরোজপুর পৌরসভার ব্রাহ্মণকাঠী এলাকায় জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। পরে শুক্রবার (২২ আগষ্ট) পিরোজপুর সদর থানায় মৃত আবদুল মালেকের পুত্র জমির মালিক শাহিন হাওলাদার বাদী হয়ে একটি মামলা করেন।

news24bd.tv/রিমু