ইউক্রেনই জিতবে: মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী
ইউক্রেনই জিতবে: মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী

ইউক্রেনই জিতবে: মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন মনে করছেন, ইউক্রেনীয়রা ‘সঠিক সরঞ্জাম’ এবং সমর্থন পেলে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে জিততে পারে।

পোলিশ-ইউক্রেন সীমান্তে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

অস্টিন বলেন, যুদ্ধে জয়ের প্রথম ধাপ হলো বিশ্বাস করা যে আপনি জিততে পারবেন। আমি বিশ্বাস করি তারা (ইউক্রেন) জিততে পারবে।

আর রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনের জয় নিশ্চিত করার জন্য আমরা যা যা করা প্রয়োজন, তার সবই করব।  

এদিকে, রাশিয়া ইউক্রেনে তাদের যুদ্ধের লক্ষ্যে ব্যর্থ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন।  

কিয়েভে ইউক্রেনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর পোল্যান্ডে যুক্তরাষ্ট্রের এই শীর্ষ কূটনীতিক সাংবাদিকদের বলেন, আমরা দেখছি যে রাশিয়া তার যুদ্ধের লক্ষ্যে ব্যর্থ হচ্ছে। আর ইউক্রেন সফল হচ্ছে। ইউক্রেনকে সম্পূর্ণভাবে পরাধীন করা, তার সার্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতা কেড়ে নেওয়া মস্কোর প্রধান লক্ষ্য হলেও, তারা সেই লক্ষ্যে ব্যর্থ হয়েছে। ’ 

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরু হওয়ার পর এই প্রথম শীর্ষ দুই মার্কিন কর্মকর্তা কিয়েভ সফর করলেন। এর আগে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনসহ বিভিন্ন দেশের নেতারা কিয়েভ সফরে যান। দুমাস ধরে চলা যুদ্ধে তারা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়া দেশটির পাশে দাঁড়িয়েছেন।  

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা অলেকসি অ্যাস্টোভিচ বলেন, মার্কিন পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষা প্রধানরা প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সঙ্গে বৈঠক করেছেন। তারা কীভাবে ইউক্রেনকে সহায়তা করতে পারেন, তা নিয়ে কিছু সিদ্ধান্ত আসতে পারে বৈঠক থেকে।  

রুশ অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকেই অস্ত্রসহ নানা সহায়তা দিয়ে ইউক্রেনকে সমর্থন দিচ্ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসন। পাশাপাশি রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতেও আন্তর্জাতিকভাবে নেতৃত্ব দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।  

জেলেনস্কি জানান, বৈঠকে মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রয়োজনীয় সামরিক সহায়তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এর আগে গেল মার্চে পোল্যান্ড, চেক প্রজাতন্ত্র ও স্লোভেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীরা কিয়েভ সফর করেন। তখন তাদের এ সফরের কথা গোপন রাখা হলেও, পরবর্তীতে তা জানাজানি হয়ে যায়।

news24bd.tv/ তৌহিদ

;