স্ত্রীর মরদেহ নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না আয়নাল হকের
স্ত্রীর মরদেহ নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না আয়নাল হকের

স্ত্রীর মরদেহ নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না আয়নাল হকের

বগুড়া প্রতিনিধি

স্ত্রীর মরদেহ নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না গাইবান্ধার আয়নাল হকের। লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের সাথে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেছে তার। এ ঘটনায় আহত হয়েছে নিহতের ছেলে সহ আরো তিনজন। সোমবার বেলা চারটার দিকে বগুড়ার শেরপুর উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের ঘোগা নামক স্থানে ঢাকা—বগুড়া মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। দুর্ঘটনায় নিহত আয়নাল হক (৪৫) গাইবান্ধা জেলার সদর উপজেলার ফরিদ উদ্দিনের ছেলে।

গতকাল মরদেহ নিয়ে ঢাকা থেকে অ্যাম্বুলেন্সে বাড়ি ফিরছিলেন স্বামী—সন্তানসহ স্বজনরা। পথিমধ্যে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সটির। এতে স্বামী আয়নাল হক নিহত হন।

এছাড়া ওই ঘটনায় আহতরা হলেন- একই জেলা ও উপজেলার মকবুল হোসেনের ছেলে মিজানুর রহমান মিজান (১০) নিহতের ছেলে ফিরোজ আলী (৩০) ও পিরোজপুর জেলার কাউখালী উপজেলার অ্যাম্বুলেন্স চালক দ্বীন ইসলাম (৩৫)।

শেরপুর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা নাদের হোসেন জানান, ওই সময়ে বগুড়া থেকে ছেড়ে যাওয়া শ্যামলী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকায় যাচ্ছিল। এসময় বিপরীতদিক থেকে আসা লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সটি মহাসড়কের উপজেলার ঘোগা নামক স্থানে পৌঁছালে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ওই ব্যক্তি নিহত হন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও তিনজন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় ফায়ার সার্ভিসের কমীর্রা আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে যান। কিন্তু অবস্থার অবনতি ঘটলে তাৎক্ষণিক তাদেরকে বগুড়ায় শজিমেক হাসপাতালে স্থান্তান্তর করা হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি ফিরোজ আলী জানান, গুরুতর অসুস্থ মাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেখানেই মারা যান তিনি। অ্যাম্বুলেন্সযোগে মায়ের লাশ নিয়ে গ্রামে ফেরার পথে দুর্ঘটনা ঘটে। এতে তার বাবা আয়নাল হকও মারা গেছেন জানান তিনি।

জানতে চাইলে শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ বানিউল আনাম এ প্রসঙ্গে বলেন, দুর্ঘটনার পরপরই বাসের চালক—হেলপার পালিয়ে যাওয়ায় তাদের কাউকে আটক করা যায়নি। তবে বাস ও অ্যাম্বুলেন্স জব্দ করা হয়েছে। পাশাপাশি উক্ত ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

news24bd.tv/তৌহিদ