'নোয়াখালীকে শান্তির জনপদ হিসেবে ধরে রাখতে একসঙ্গে কাজ করতে হবে'
'নোয়াখালীকে শান্তির জনপদ হিসেবে ধরে রাখতে একসঙ্গে কাজ করতে হবে'

'নোয়াখালীকে শান্তির জনপদ হিসেবে ধরে রাখতে একসঙ্গে কাজ করতে হবে'

অনলাইন ডেস্ক

নোয়াখালীর জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম (পিপিএম) বলেছেন, মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার পুলিশ হবে জনতা- নোয়াখালীতে এ শ্লোগানকে সার্থক করতে সক্ষম হয়েছি। এ এলাকাকে শান্তির জনপদ হিসেবে ধরে রাখতে হলে পুলিশ, রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, জনগণকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ থানার আয়োজনে মাদক, জঙ্গীবাদ নির্মূল ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক জ্যোতী খীসা, মোরতাহিন বিল্লাহ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. খোরশেদ আলম চৌধুরী, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. সেলিম, উপজেলা কৃষি অফিসার মো. বেলাল হোসেন, বেগমগঞ্জ সার্কেল নাজমুল হাসান রাজীব। বিশিষ্ট সমাজসেবক মো. ইউসুফ আলী প্রমুখ।

এসময় কাদের মির্জা বলেন, কোম্পানীগঞ্জে গত দেড় বছরে যে সন্ত্রাস নৈরাজ্য সৃষ্টি হয়েছিল তা শক্ত হাতে দক্ষতার সঙ্গে দমন করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রেখেছেন শ্রদ্ধেয় পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম।

কোম্পানীগঞ্জ থানা প্রাঙ্গণে রোববার বাদ আছর ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ এস এম মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো. রতন মিয়া।