ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রির শেষ দিন আজ, অভিযোগ যাত্রীদের
ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রির শেষ দিন আজ, অভিযোগ যাত্রীদের

সংগৃহীত ছবি

ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রির শেষ দিন আজ, অভিযোগ যাত্রীদের

অনলাইন ডেস্ক

ঈদযাত্রার অগ্রিম টিকিট বিক্রির শেষ দিনেও রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। আজ বুধবার দেয়া হচ্ছে পহেলা মে’র অগ্রিম টিকিট। সকাল আটটায় টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে, চলবে বিকেল চারটা পর্যন্ত।

কমলাপুরে একযোগে ১৮টি কাউন্টার থেকে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে।

এর মধ্যে দুটি নারী ও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের জন্য আলাদা কাউন্টার রয়েছে।

যাত্রীরা অভিযোগ করেছেন, চাহিদা অনুযায়ী টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। অনলাইনে টিকিট খুঁজে বিফল হওয়া যাত্রীরা বলছেন, সকালে সার্ভার চালু হওয়ার কিছুক্ষণ পরই দেখা গেল টিকিট নেই। বাধ্য হয়ে কমলাপুরে এসেছেন তারা।

এর আগে, এক সংবাদ সম্মেলনে কমলাপুর রেলস্টেশনের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার জানান, ঈদ উপলক্ষে অনেক মানুষ ট্রেনে বাড়ি যেতে চাওয়ায় টিকিট কাটতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। বলেন, আন্তঃনগর ট্রেনে প্রতিদিন যাতায়াতের জন্য রয়েছে ২৭ হাজার ৭৫৩টি টিকিট। আর কমিউটারে আরও ২৫ হাজারের মতো টিকিট রয়েছে। ফলে ঈদযাত্রায় প্রতিদিন ৫৩ হাজার যাত্রী ট্রেনে রাজধানী ঢাকা ছাড়তে পারবেন। সবাই যদি ট্রেনে করে বাড়ি যেতে চান সেটা কোনো অবস্থাতেই সম্ভব না বলে মন্তব্য করে মাসুদ সারওয়ার।  

এদিকে, ঈদের ছুটি শুরু না হলেও আজ থেকেই শুরু হয়ে গেছে ঈদযাত্রা। ভোগান্তি এড়াতে সকাল থেকেই শেকড়ের টানে বাড়ির পথে ছুটছে ঘরমুখো মানুষ।

ঈদযাত্রায় সড়কের দুর্ভোগ ও যানজটের কথা চিন্তা করেই আগেভাগে অনেকে পরিবার-পরিজন নিয়ে গ্রামের পথে পাড়ি দিচ্ছেন। কেউ বা পরিবারের সদস্যদেরকে ঈদের ছুটির আগেই পাঠিয়ে দিচ্ছেন নিজ নিজ গন্তব্যে। ফলে মহাসড়কে চাপ বাড়তে শুরু করেছে ঘুরমুখো মানুষের।

দক্ষিণাঞ্চলের ‘প্রবেশদ্বার’ হিসেবে খ্যাত পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার, শিমুলিয়া-মাঝিরকান্দি ঘাটে ঘরমুখো মানুষের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে। যানবাহনের দীর্ঘ সারিতে বাড়ছে ভোগান্তিও।

news24bd.tv/রিমু

;