দুই ছেলেকে বিষ খাইয়ে মায়ের আত্মহত্যাচেষ্টা, ১ ছেলের মৃত্যু
দুই ছেলেকে বিষ খাইয়ে মায়ের আত্মহত্যাচেষ্টা, ১ ছেলের মৃত্যু

সংগৃহীত ছবি

দুই ছেলেকে বিষ খাইয়ে মায়ের আত্মহত্যাচেষ্টা, ১ ছেলের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

পারিবারিক কলহের জেরে দুই ছেলেকে বিষ পান করিয়ে মারুফা খাতুন (৩০) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা নারী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। এর মধ্যে বিষক্রিয়ায় বড় ছেলে বাকপ্রতিবন্ধী মারুফ হোসেন (৫) মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এছাড়া দুই বছর বয়সী ছোট ছেলে মেহেদী এবং তার মায়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এর আগে রোববার ঘটনাটি ঘটে পাবনার চাটমোহর উপজেলার পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নের রাউতকান্দি গ্রামে। গৃহবধূ ওই এলাকার আবদুল মোমিনের স্ত্রী। এ ঘটনায় পুরো উপজেলাজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।  

জানা গেছে, রোববার (২৪ এপ্রিল) সকালে পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্বামী আবদুল মোমিন ও শাশুড়ি ফরিদা খাতুনের সঙ্গে ঝগড়া হয় মারুফা খাতুনের। এরপর তিনি (মারুফা) জন্মনিববন্ধনের কাগজ ফটোকপি করার কথা বলে বাজারে গিয়ে জমিতে দেওয়া বিষ কিনে বাড়িতে ফেরেন। প্রথমে সেই কীটনাশক নিজে পান করেন। পরে বড় ছেলে বাকপ্রতিবন্ধী মারুফ হোসেন (৫) এবং ছোট ছেলে মেহেদীকেও (২) খাওয়ান। কিছুক্ষণ পর মা ও দুই ছেলে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্বজনরা তাকে পার্শ্ববর্তী ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তিনজনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় অ্যাম্বুলেন্সযোগে প্রথমে পাবনা মেডিকেলে এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

মঙ্গলবার বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় বাকপ্রতিবন্ধী বড় ছেলে মারুফ। এদিকে চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা মারুফা খাতুন এবং তার ছোট ছেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে ছুটে যান সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীন, থানার ওসি মুহম্মদ আনোয়ার হোসেনসহ পুলিশের কর্মকর্তারা। সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীন  বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জেরেই এই ঘটনা বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি।  

news24bd.tv/আলী

;