প্রেমিকের কথা মতো মাকে বিষপানে হত্যা করলো মেয়ে
প্রেমিকের কথা মতো মাকে বিষপানে হত্যা করলো মেয়ে

প্রতীকী ছবি

প্রেমিকের কথা মতো মাকে বিষপানে হত্যা করলো মেয়ে

অনলাইন ডেস্ক

প্রেমিকের কথা মতো মাকে বিষপানে হত্যা অভিযোগ উঠেছে দশম শ্রেণির পড়ুয়া এক নাবালিকার বিরুদ্ধে। ঘটনা ভারতের মেদিনীপুর শহরের পটনাবাজার এলাকায়। গতকাল বৃহস্পতিবার থানায় অভিযোগ জানান, ওই মেয়ের বাবা অংশুজিৎ দত্ত। তার অভিযোগের ভিত্তিতে নাবালিকা মেয়ে, প্রেমিক এবং প্রেমিকের বাবা-মাসহ চার জনকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

প্রেমিকের ‘কথা মতো’ ঠান্ডা পানীয়তে বিষ মিশিয়ে মাকে খাইয়ে খুন করার অভিযোগ নাবালিকা মেয়ের বিরুদ্ধে।  

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রেমিকের বাড়ি শহরের মহাতাবপুর এলাকায়। প্রেমিকের ‘কথা মতো’ ঠান্ডা পানীয়তে বিষ মিশিয়ে মাকে খাইয়ে খুন করে মেয়ে। এ ঘটনায় খুন, ষড়যন্ত্র, এবং প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ মামলা দায়ের করেন মেয়েটির বাবা।  

নাবালিকার প্রেমিক জিৎকে পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজতে নিতে চেয়ে আবেদন জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, গত ১৫ এপ্রিল, পয়লা বৈশাখের দিন অসুস্থ হয়ে মারা যান অনিতা। তাদের একটি দোকান রয়েছে। পুলিশ জানতে পেরেছে সেখানে ঠান্ডা পানীয়ের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে খাইয়েছিল তার মেয়ে। হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে অনিতা মারা গিয়েছেন বলে স্থানীয় চিকিৎসক ঘোষণার পরে দেহ দাহ করে দেওয়া হয়।

এ যাবৎ এই মৃত্যুর পিছনে কোনও ষড়যন্ত্র থাকতে পারে বলে কেউ ভাবেননি। শুক্রবার দুপুরে নাবালিকা তার প্রেমিকের সঙ্গে চ্যাট করার সময় সেই বাক্যালাপ কোনও ভাবে দেখে ফেলেন পরিবারের সদস্যরা। সেই চ্যাট দেখে পরিবারের লোকেরা জানতে পারেন, ওই প্রেমিকের সঙ্গে যোগসাজশ করে ঠান্ডা পানীয়তে বিষ জাতীয় কিছু মিশিয়ে মাকে খাইয়ে ছিল মেয়েটি।

পুলিশ আরও জানায়, প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্ক না রাখার কথা বলতেন তার মা। তা থেকেই পরিবারের অন্য সদস্যদের ধারণা হয়, প্রেমিকের পরিবারের সঙ্গে যোগসাজশ করেই মাকে খুন করা হয়েছে। মেয়েটির বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে নাবালিকা-সহ চার জনকে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা 

news24bd.tv/রিমু