চরফ্যাশনে আ.লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ২১
চরফ্যাশনে আ.লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ২১

চরফ্যাশনে আ.লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ২১

অনলাইন ডেস্ক

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ২১ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মঙ্গলবার (৩ মে) রাতে উপজেলার দুলারহাট থানার নীলকমল ইউনিয়নের মুন্সিরহাট বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, নীল কমল ইউনিয়নের আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বর্তমান চেয়ারম্যান আলমগীর হাওলাদার ও সাবেক চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন লিখন গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, ঈদের দিন উভয় পক্ষ দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে স্থানীয় মুন্সিরহাট বাজারে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করছিলেন। এ সময় উভয় গ্রুপের কর্মী-সর্মথকদের মধ্যে বাক-বিতণ্ডার একপর্যায়ে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। এতে উভয় পক্ষের ২১ জন আহত হন। আহতদের চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ইকবাল হোসেন লিখন বলেন, তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মুনসির হাট বাজারে তার অফিসে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করছিলেন। এ সময় বর্তমান চেয়ারম্যান আলমগীর হাওলাদারের উপস্থিতিতে কর্মীসমর্থকরা তার অফিস লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে তার ১৫-২০ জন কর্মী আহত হয়েছেন।

তবে বর্তমান চেয়ারম্যান গ্রুপের পাল্টা অভিযোগ, আলমগীর হাওলাদার দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে ঈদ শুভেচ্ছ বিনিময়কালে লিখন গ্রুপের লোকজন অতর্কিত হামলা চালায়। এতে তাদের ২০-২৫ জন আহত হয়।

দুলালহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুরাদ হোসেন বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

;