ইসরাইলি ভাড়াটে সেনারা ইউক্রেনে যুদ্ধ করছে: রাশিয়া
ইসরাইলি ভাড়াটে সেনারা ইউক্রেনে যুদ্ধ করছে: রাশিয়া

ইসরাইলি ভাড়াটে সেনারা ইউক্রেনে যুদ্ধ করছে: রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ইসরাইলি ভাড়াটে সেনারা ইউক্রেনে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে বলে অভিযোগ করেছে মস্কো। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, ইউক্রেনের উগ্র-ডানপন্থি ‘আজোভ’ রেজিমেন্টের সঙ্গে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইসরাইলি মিলিশিয়ারা অংশগ্রহণ করছে।

২০১৪ সালে ইউক্রেনের উগ্র জাতীয়তাবাদী ও রুশ-বিরোধী তরুণদের নিয়ে আজোভ রেজিমেন্ট গঠন করা হয় যা ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। পূর্ব ইউক্রেনের দোনবাস অঞ্চলে রুশ-পন্থি অস্ত্রধারীদের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য এই রেজিমেন্ট গঠন করে কিয়েভ।

আজভ রেজিমেন্টের সদস্যদের রাশিয়া ‘ফ্যাসিবাদী’ ও ‘নাৎসি’ বলে মনে করে এবং ইউক্রেনকে এই নাৎসিদের হাত থেকে মুক্ত করা রাশিয়ার চলমান ইউক্রেন অভিযানের অন্যতম ঘোষিত লক্ষ্য।

জাখারোভা বলেন, ইসরাইলি ভাড়াটে সেনারা ইউক্রেনে আজোভ মিলিশিয়াদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে যুদ্ধ করছে।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের এক বক্তব্যকে কেন্দ্র করে যখন তেল আবিব-মস্কো সম্পর্কে তীব্র টানাপড়েন চলছে তখন রাশিয়া নতুন করে ইসরাইলের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলল।

ল্যাভরভ সম্প্রতি ইতালির একটি নিউজ চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইউক্রেনকে নব্য নাৎসিমুক্ত করার রুশ অভিপ্রায় সম্পর্কে কথা বলেন। তাকে প্রশ্ন করা হয় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি নিজে যখন একজন ইহুদি তখন রাশিয়া কেন দেশটিকে নব্য নাৎসিমুক্ত করার কথা বলছে?

এর উত্তরে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইহুদি হলেই যে কোনো ব্যক্তি নাৎসি হতে পারবে না তা নয়। আর দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় সব নাৎসিই অ-ইহুদি ছিলেন না। এমনকি এডলফ হিটলারের শরীরেও ইহুদির রক্ত ছিল।

ইসরাইল ল্যাভরভের এ বক্তব্যের বিরুদ্ধে গত সোমবার কঠোর প্রতিক্রিয়া জানায়। তেল আবিব দাবি করে, ল্যাভরভ তার বক্তব্যের মাধ্যমে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছেন।

news24bd.tv তৌহিদ

;