‘চালাকি-কারচুপি ছাড়ুন, তা না হলে শ্রীলঙ্কার মতো হবে’
‘চালাকি-কারচুপি ছাড়ুন, তা না হলে শ্রীলঙ্কার মতো হবে’

‘চালাকি-কারচুপি ছাড়ুন, তা না হলে শ্রীলঙ্কার মতো হবে’

অনলাইন ডেস্ক

সরকারকে সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে হাঁটার পরামর্শ দিয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী সরকারের উদ্দেশ্যে বলেছেন, চালাকি, কারচুপি ছেড়ে সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে হাঁটুন। আর তা না হলে দেশের অবস্থা শ্রীলঙ্কার মতো হবে।  জাফরুল্লাহ আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে এক প্রতিবাদ সভায় এসব কথা বলেন।

সুফিবাদী কণ্ঠশিল্পী সৈয়দ গোলাম মঈনুদ্দীনের ওপর বিচারবহির্ভূত নির্যাতনের বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়।

 বাংলাদেশ তরিকতে ইসলাম ঐক্যজোট এবং পীর মাশায়েখ ঐক্য পরিষদের অন্যতম সমন্বয়ক শাহ সুফি শামসুল আলম চিশতির সভাপতিত্বে সভায় পীরজাদা আনিছুর রহমান জাফরী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, শান্তির দ্বীপ ছিল শ্রীলঙ্কা। তারা শিক্ষিত মানুষ। শান্তির দেশে কী হচ্ছে। আগুন জ্বলছে। গণহারে দারিদ্র্য বাড়ছে। আমরা সেদিকে যাব না তো! আমাদের সবার আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত মন্তব্য করে তিনি বলেন, আমাদের উচিত আল্লাহকে বলা আমাদের সঠিক পথ দেখাও।  প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে না হাঁটলে অবস্থা শ্রীলঙ্কার মতো হবে। সেখানে যা ঘটছে তেমন কাহিনি এখানেও সৃষ্টি হতে পারে। সুতরাং সাবধান, সাবধান।

গান গাওয়াকে কেন্দ্র করে সুফিবাদী গায়ক সৈয়দ গোলাম মইনুদ্দিন টিপুকে থানায় ডেকে মারধর ও গ্রেপ্তারের নিন্দা জানিয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ইসলাম গুণ্ডামি করার অবকাশ দেয়নি। ফারুককে দারোগা গিরির ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, গুণ্ডামির নয়। কে কী করেছে এটার বিচার করবেন আল্লাহ; আমি, আপনি না।

তিনি আরো বলেন, কোরআন পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ কবিতার বই। কোরআনকে বহুবার নোবেল প্রাইজ দেওয়া উচিত ছিল। আজকে আমাদের দুর্ভাগ্য মুসলমানরা নিজেরা নিজেদের ভালো কিছু করতে চায় না। ইসলাম যুক্তি তর্কের ধর্ম।

তিনি বলেন, ইসলামে কোনো মহিলার নামে গীবত করা সবচেয়ে কঠিনতম গীবত। গীবত করার আগে তার প্রমাণ থাকতে হবে। দেখেন কি জ্ঞানের কথা। কয়টা প্রমাণ থাকতে হবে, একজন মানুষ ভুল করতে পারে কিন্তু তার একাধিক প্রমাণ থাকতে হবে। দেখেন কিভাবে সবগুলো জিনিসের সৃষ্টি করেছে।

সুফিদেরকে গ্রাম-গঞ্জের সর্বত্র ইসলামের বাণীকে তুলে ধরার আহ্বান জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, এখনো অনেকগুলো আলেম জেলে আছে। আপনারা কি করে এখনো চুপ করে আছেন আমি জানি না। এখনো তাদের জামিন হয়নি।

প্রত্যেকটা স্কুল-কলেজে আরবি পড়ানো উচিত উল্লেখ করে জাফরুল্লাহ বলেন, মুসলমানদের উদার হওয়ার প্রয়োজন আছে। কারণ আমি আমরা মিথ্যাচার করব না। আমরা সবাই সম্মিলিতভাবে সুখী সমৃদ্ধি বাংলাদেশের জন্য দোয়া করব। মুসলমানরা অন্য ধর্মের প্রতি পরমতসহিষ্ণুতার গুরুত্ব দিবে। অন্যের ব্যাপারে জোরজবরদস্তি করা চলবে না।  ভালো মুসলমান হওয়া আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত। এটা আমাদের সবার দায়িত্ব।

news24bd.tv/ তৌহিদ

;