গুলি করার হুশিয়ারি শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের
গুলি করার হুশিয়ারি শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের

সংগৃহীত ছবি

গুলি করার হুশিয়ারি শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের

অনলাইন ডেস্ক

নজিরবিহীন অর্থনৈতিক সংকটের মুখে থাকা শ্রীলঙ্কায় বিগত কয়েক সপ্তাহ মূলত শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ হয়েছে। তবে সোমবার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের সমর্থকরা বাইরে থেকে রাজধানীতে প্রবেশের চেষ্টা করে বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হলে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। সাত বিক্ষোভকারী নিহত এবং দুই শতাধিক আহত হওয়ার পর পদত্যাগে বাধ্য হন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে। সোমবার কারফিউ জারি করা হয়।

মোতায়েন করা হয়েছে হাজার হাজার সেনা ও পুলিশ সদস্য। এদিকে রাষ্ট্রীয় সম্পদের ক্ষতি করলে গুলি করা হতে পারে বলে বিক্ষোভকারীদের সতর্ক করে দিয়েছে শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। আজ মঙ্গলবার একটি বিবৃতিতে এমনটি জানানো হয়।  

আরও পড়ুন : সেনা ও পুলিশের হাতে জরুরি ক্ষমতা 

শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, যারা সরকারি সম্পত্তির ক্ষতি করছে বা অন্যদের ক্ষতি করছে তাদের গুলি করা হতে পারে।  

নজিরবিহীন অর্থনৈতিক সংকটকে কেন্দ্র করে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত সাতজন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ক্ষমতাসীন দলের একজন এমপিও রয়েছেন। বিক্ষোভের মধ্যে পড়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন জানা গেছে। বিক্ষোভকারীদের দমাতে দেশটিতে কারফিউ জারি করা হয়েছে। মাহিন্দা রাজপক্ষের পদত্যাগের পর গতকাল সোমবারই শ্রীলঙ্কায় প্রায় দুই শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।  

আরও পড়ুন : রাজাপাকসেদের কলম্বো ছাড়ার ভিডিও প্রকাশ!

১৯৪৮ সালে ব্রিটিশ শাসন থেকে মুক্ত হওয়ার পর এখন সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক সংকটে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। যদিও দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজপক্ষে এখনো পদত্যাগ করেননি। শ্রীলঙ্কার প্রধান বিরোধী দল সমগি জনা বালাওয়েগয়া (এসজেবি) প্রেসিডেন্টের অন্তর্বর্তী সরকারের অংশ হওয়ার প্রস্তাবকে ফিরিয়ে দিয়েছে। দলটি শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ দাবি করেছে।

news24bd.tv/আলী

;