ভারতে নিয়ে স্ত্রীকে বিক্রির চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হত্যা  
ভারতে নিয়ে স্ত্রীকে বিক্রির চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হত্যা  

প্রতীকী ছবি

ভারতে নিয়ে স্ত্রীকে বিক্রির চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হত্যা  

অনলাইন ডেস্ক

যশোরে সালমা খাতুন (২৪) নামে এক গৃহবধূকে ভারতে নিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী কামরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধবার (১১ মে) রাতে যশোরের ডিবি পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

কামরুল ইসলাম যশোর সদর উপজেলার বানিয়ারগাতী গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে। যশোর পুলিশের মুখপাত্র ইন্সপেক্টর রুপন কুমার সরকার এ তথ্য জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ১৫ এপ্রিল কামরুল তার স্ত্রী সালমাকে ফুসলিয়ে ভারতে নিয়ে যায়। এরপর গত ৮ মে একা দেশে ফিরে আসে কামরুল। সালমার বিষয়ে জানতে চাইলে সে স্ত্রীর পরিবারের সঙ্গে খারাপ আচরণ করে এবং বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

এরপর ভারতে সালমার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে বাবা সহিদুল ইসলাম ১১ মে কোতোয়ালি থানায় মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা করেন।

পুলিশ জানায়, মামলার পর পুলিশ ঘটনা তদন্তে জানতে পারে, সালমাকে ভারতের গুজরাট রাজ্যের আনান্দ্ব জেলার থানা এলাকায় নিয়ে যায় কামরুল। সেখানে বিক্রির চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে তাকে মারধর ও শ্বাসরোধে হত্যার পর দেশে ফিরে আসে।

ইন্সপেক্টর রুপন কুমার সরকার জানান, বুধবার রাত ১২টার দিকে এসআই মফিজুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম কামরুলকে গ্রেপ্তার ও তার তিনটি পাসপোর্ট, নিহতের পাসপোর্ট ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করেন। কামরুল পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে বিষয়টি স্বীকার করেছে।

news24bd.tv/কামরুল

;