উত্তর কোরিয়ায় প্রথমবারের মতো লকডাউন
উত্তর কোরিয়ায় প্রথমবারের মতো লকডাউন

সংগৃহীত ছবি

করোনা আক্রান্ত ৮ লাখের বেশি

উত্তর কোরিয়ায় প্রথমবারের মতো লকডাউন

অনলাইন ডেস্ক

মাত্র ৩ দিনের মধ্যে উত্তর কোরিয়ায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৮ লাখ ২০ হাজার ছাড়িয়েছে। জানা গেছে, গত তিন দিনে দেশটিতে কোভিডজনিত অসুস্থতায় মৃত্যু হয়েছে মোট ৪২ জনের। খবর কেসিএনের। রোববার (১৫ মে) কেসিএনের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

 

শনিবার (১৪ মে) দেয়া এক বিবৃতিতে নতুন করে করোনার প্রাদুর্ভাবকে মারাত্মক বিপর্যয় বলে উল্লেখ করে উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উন বলেন, উত্তর কোরিয়া প্রতিষ্ঠার পর থেকে আমাদের দেশে এর আগে এত বড় বিপর্যয় আর আসেনি।

কেসিএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১২ মে আবারও নতুন করে করোনা প্রাদুর্ভাবের কথা নিশ্চিত করে উত্তর কোরিয়া প্রশাসন। রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে সম্প্রতি ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে বলেও জানিয়েছে তারা। ইতোমধ্যেই, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে লকডাউনও জারি করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন।

তবে গত দুই বছরের মহামারিতে এ পর্যন্ত কোনো টিকাদান কর্মসূচি না হাতে নেয়ায় উত্তর কোরিয়ার জনগণ করোনা টিকার কোনো ডোজ পাননি। ফলে, সর্বাত্মক লকডাউন জারি হলেও সংক্রমণের গতি কমাতে তা তেমন কোনো ভূমিকাই রাখতে পারছে না।

উত্তর কোরিয়ার স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা বিশ্বের অন্যতম অনগ্রসর হিসেবে স্বীকৃত। দেশটিতে নেই করোনার কোনো টিকা, করোনা টেস্টের ব্যবস্থা। এমনকি করোনা সংক্রমণজনিত অসুস্থতায় যেসব ওষুধ প্রয়োজন, সেসবের কিছুই নেই দেশটিতে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারি শুরুর পর থেকেই নিজেদের সীমান্ত বন্ধ রেখেছিল উত্তর কোরিয়া। এতদিন পর্যন্ত দাবি ছিল, উত্তর কোরিয়ায় করোনার কোনো প্রাদুর্ভাব নেই। এমনকি গত বছর পর্যন্ত করোনা টিকার কয়েকটি চালান ফিরিয়েও দিয়েছে কিম জং উন প্রশাসন। তবে বর্তমান পরিস্থিতি সামাল দিতে উত্তর কোরিয়াকে সহায়তা ও টিকা দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে চীন ও দক্ষিণ কোরিয়া।

news24bd.tv/কামরুল