কিশোরীকে প্রতিদিন যৌন নির্যাতন করত বাবা!
কিশোরীকে প্রতিদিন যৌন নির্যাতন করত বাবা!

প্রতীকী ছবি

কিশোরীকে প্রতিদিন যৌন নির্যাতন করত বাবা!

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে নিজের মেয়েকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে। পরে কিশোরীর মুখে যৌন হেনস্থার কথা শুনে অভিযুক্ত বাবাকে গণধোলাই দিলেন স্থানীয়রা। ভারতের জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ি ব্লকের বারঘড়িয়া এলাকায় এমন ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার।

পরে কিশোরীর মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতেই অভিযুক্ত বাবাকে গ্রেপ্তার করেছে ধূপগুড়ি থানার পুলিশ।

আটক ব্যক্তির নাম ভরত সেন। পেশায় টোটোচালক। সম্পর্কে টানাপড়েনের জেরে স্ত্রী থাকেন আসামে। বাড়ঘড়িয়ার বাড়িতে ছোট্ট মেয়েকে নিয়েই থাকে ভরত। মেয়ে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।

স্থানীয় সূত্রে খবর, রোববার বিকেলে ভরতের কিশোরী মেয়ে প্রতিবেশীদের জানায়, তার বাবা তাকে প্রতিদিন যৌন নির্যাতন করে। প্রথমে অনেকেই মেয়েটির কথায় বিশ্বাস করেননি। পরে পাড়ার নারীদের একাংশ কিশোরীর সঙ্গে একান্তে কথা বলেন।

পরে ঘটনার সত্যতা মেলায় স্থানীয়রা ক্ষিপ্ত হয়ে ভরতকে মারধর করেন। স্থানীয় বাসিন্দা কৌশিক রায় বলেন, ‘ভরতের মেয়ে আমাদের জানায়, ওর বাবা ওর সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছে। এই শুনে আমরা ভরতকে গণপিটুনি দিয়েছি। ’ গণধোলাইয়ের খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে এসে অভিযুক্ত বাবাকে আটক করে পুলিশ। কিশোরীকে নিয়ে আসা হয় থানায়। এরপর মেয়েটির বয়ানের ভিত্তিতেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। যদিও ভরত তার বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগই অস্বীকার করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কিশোরীকে প্রথমে ধূপগুড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সোমবার জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে বলে জানা গেছে। ভরতকে সোমবার আদালতে হাজির করানো হবে।

news24bd.tv তৌহিদ