স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ
স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

প্রতীকী ছবি

স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

গাজীপুরের টঙ্গীতে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ফিরোজ  গৃহবধূর ভাড়া বাসায় গিয়ে তার স্বামীকে আটকে রেখে মারধর করা হচ্ছে জানিয়ে মেসে ডেকে নেন। গৃহবধূ মেসে গেলে আসামিরা তার স্বামীকে পিটিয়ে আহত করে পাশের কক্ষে (মেসে) আটকে রাখেন। পরে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন শফিকুল ও ফিরোজ। এ ঘটনায় রবিবার দুপুরে টঙ্গী পূর্ব থানায় দুজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নির্যাতিতা গৃহবধূ।

আসামিরা হলেন মরকুন টিঅ্যান্ডটি বাজার এলাকার শফিকুল ইসলাম (৪৫) ও ফিরোজ (৩৫)।  

টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দেলোয়ার হোসেন জানান, গত শুক্রবার (১৩ মে) রাত ১১টার দিকে শফিকুল ইসলাম নির্যাতিতা গৃহবধূর স্বামীকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যান। রাত সাড়ে ১১টার দিকে ফিরোজ গৃহবধূর ভাড়া বাসায় গিয়ে তাঁর স্বামীকে আটকে রেখে মারধর করা হচ্ছে জানিয়ে মেসে ডেকে নেন। গৃহবধূ মেসে গেলে আসামিরা তাঁর স্বামীকে পিটিয়ে আহত করে পাশের কক্ষে (মেসে) আটকে রাখেন।  

পরে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন শফিকুল ও ফিরোজ। ঘটনাটি কাউকে না জানানোর শর্তে শনিবার ভোর ৬টায় ওই দম্পতিকে ছেড়ে দেওয়া হয়। রবিবার সকালে টঙ্গী পূর্ব থানায় দুজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন নির্যাতিতা নারী।  

টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেন জানান, আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

news24bd.tv/আলী