মাদারীপুরে ডাকাতি, ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট 
মাদারীপুরে ডাকাতি, ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট 

সংগৃহীত ছবি

মাদারীপুরে ডাকাতি, ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট 

মাদারীপুর প্রতিনিধি :

মাদারীপুরের কালকিনিতে মোসা. আসমা ইয়াসমিন লাকি নামে এক শিক্ষিকার বসতবাড়িতে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। সোমবার গভীর রাতে পৌর এলাকার উত্তর রাজদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাতদলের দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে ওই শিক্ষিকা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নগদ টাকাসহ প্রায় ১৫ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে ডাকাতদল।

এদিকে এ ডাকাতির ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।  

ভুক্তভোগী পরিবার, পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে যানা যায়, পৌর এলাকার ৮১নং উত্তর রাজদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মোসা. আসমা ইয়াসমিন লাকির বসতঘরে রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে একদল ডাকাত প্রথমে ব্যালকনির গ্রীল ও দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। পরে ওই শিক্ষিকাসহ ঘরের সবাইকে দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতদল। পরে ঘরে থাকা নগদ ১ লাখ ২১ হাজার টাকা, সাড়ে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার ও ২টি মোবাইল সেটসহ প্রায় ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় ডাকাত দলের দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন ওই শিক্ষিকা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে থানা পুলিশ।  

এদিকে এ ডাকাতির ঘটনায় কালকিনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষিকার ভাই মো. এনামুল হক জুয়েল হাওলাদার।

ভুক্তভোগী শিক্ষিকা মোসা. আসমা ইয়াসমিন লাকি কান্না জড়িত কন্ঠে নিউজ টোয়েন্টিফোরকে বলেন, আমি আমার এক মেয়ে ও আমার মা ঘরের একরুমে রাতে ঘুমিয়ে ছিলাম। কিন্তু হঠাৎ দরজা ভাঙ্গার শব্দ পেয়ে রুমের লাইট জ্বালালে আমাদের দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ঘরে থাকা নগদ ১ লাখ ২১ হাজার টাকা, সারে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার ও ২টি মোবাইল সেটসহ প্রায় ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট করে যায় ডাকাত দল। এই ঘটনায় আমার ভাই এমদাদুল হক জুয়েল বাদী হয়ে কালকিনি থানায় একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করেছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. ইশতিয়াক আশফাক রাসেল নিউজ টোয়েন্টিফোরকে বলেন, এই ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।  

news24bd.tv/কামরুল