বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট তিন বছরে আয় করছে ৩০০ কোটি টাকা
 বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট তিন বছরে আয় করছে ৩০০ কোটি টাকা

সংগৃহীত ছবি

 বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট তিন বছরে আয় করছে ৩০০ কোটি টাকা

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ তিন বছর ধরে আয়ের ধারায় রয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিএল)।  এরই ধারাবাহিকতায় ইতোমধ্যেই কোম্পানির মোট আয় ৩০০ কোটি টাকা অতিক্রম করেছে। সোমবার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় বিএসসিএল।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বর্তমানে কোম্পানির মাসিক আয় প্রায় ১০ কোটি টাকা।

এর প্রায় পুরোটাই দেশীয় বাজার থেকে অর্জিত হচ্ছে বলে জানায় বিএসসিএল।

সম্প্রতি বিবিসি বাংলায় ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট: তিন বছর আয় করতে পারেনি, খরচ উঠবে কবে’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। ওই প্রতিবেদনটি বিএসসিএল কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে বলে বিজ্ঞপিতে জানানো হয়। বিজ্ঞতিতে বলা হয়, প্রতিবেদনটিতে কোম্পানির প্রকৃত ব্যবসায়িক চিত্র প্রতিফলিত হয়নি, যার ফলে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। বিএসসিএল এ ব্যাপারে নিজস্ব অবস্থান স্পষ্ট করতে চায়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ তিন বছরে কোনো আয় করতে পারেনি’ কথাটি সঠিক নয়, বরং বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ গত তিন বছর যাবত আয়ের ধারায় রয়েছে। ইতোমধ্যেই কোম্পানির মোট আয় ৩০০ কোটি টাকা অতিক্রম করেছে। বর্তমানে কোম্পানির মাসিক আয় প্রায় ১০ কোটি টাকা, যার প্রায় পুরোটাই দেশীয় বাজার থেকে অর্জিত হচ্ছে। ক্রমান্বয়ে এই আয় আরও বৃদ্ধি পাবে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, এই আয় ক্রমান্বয়ে আরও বৃদ্ধি পাবে। বর্তমানে রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার সংস্থা বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারসহ মোট ৩৮টি টিভি চ্যানেল এবং দেশের একমাত্র ডিটিএইচ অপারেটর ‘আকাশ’ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর মাধ্যমে সম্প্রচার করে। দেশের দুটি ব্যাংক এরই মধ্যে এটিএম সেবা দিচ্ছে এর মাধ্যমে। আরও অনেকগুলো সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকের সঙ্গে আলোচনা চলমান।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, সম্প্রতি সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ (আর্মড ফোর্সেস ডিভিশন) বিএসসিএল এর সাথে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। এর আওতায় বাংলাদেশে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনী এবং ডিজিএফআই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সেবার আওতায় আসবে। বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতি পূরণের অংশ হিসেবে বিএসসিএল ৩১টি দুর্গম ও প্রত্যন্ত দ্বীপাঞ্চলের ১১২টি স্থানে টেলিযোগাযোগ সেবা দিচ্ছে। অদূর ভবিষ্যতে আরও বেশি দুর্গম ও প্রত্যন্ত এলাকার সুবিধাবঞ্চিত জনগণকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সেবার আওতায় আনার কার্যক্রম চলমান।

প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ ব্যবহার করে যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার শুরুর মাধ্যমে বিএসসিএল বিদেশের বাজারেও ব্যবসায়িক যাত্রা শুরু করেছে। সামনের দিনগুলোতে এটি আরও বাড়বে বলে আশা করা যায়।

news24bd.tv/কামরুল

সম্পর্কিত খবর