স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড
স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

সংগৃহীত ছবি

স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক

সিরাজগঞ্জের শাহজাদুপুরে স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে অনাদায়ে আরও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১৭ মে) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, শাহজাদপুর উপজেলার বাড়াবিল উত্তরপাড়া গ্রামের নিহত মনিরুল হকের স্ত্রী মোছা. মুক্তি খাতুন ও তার পরকিয়া প্রেমিক সাইদুল ইসলাম তুষার ওরফে তুহিন।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর এ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান রানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শাহজাদপুর উপজেলার শক্তিপুর গ্রামের মৃত মুক্তার শেখের কন্যা মোছা. মুক্তি খাতুনের সাথে একই উপজেলার বাড়াবিল উত্তরপাড়া গ্রামের মো. জেলহক প্রামানিকের ছেলে মনিরুল হকের বিয়ে হয়। বিয়ের আগে থেকে মুক্তি খাতুনের সাথে সাইদুল ইসলাম তুষারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল, যা বিয়ের পরেও মুক্তি খাতুন সম্পর্ক অব্যাহত রাখেন।

বিয়ের দুই মাস পর ২০১৯ সালের ৩ জুন রাতে মুক্তি তার দাদা হোসেন আলীর বাড়িতে বেড়াতে আসেন। পরে খাওয়া দাওয়া শেষে ওই রাতে মুক্তি ও মনিরুল একই ঘরে ঘুমায়। ঘুমানো আগে মুক্তি তার স্বামীকে ঘুমের ঔষুধ খাইয়ে ঘরে দরজা খোলা রাখে। পূর্বপরিকল্পনা মোতাবেক মুক্তির পরকিয়া প্রেমিক সাইদুল ইসলাম তুষার ঘরে ঢুকে দু’জন মিলে মনিরুল হককে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা জেলহক প্রামানিক বাদী হয়ে শাহজাদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আসামিদের উপস্থিতিতে আদালত আজ এই রায় দেন।

news24bd.tv/আলী