‘আত্মসমর্পণ’ করেছে ইউক্রেনের ২ শতাধিক সেনা
‘আত্মসমর্পণ’ করেছে ইউক্রেনের ২ শতাধিক সেনা

সংগৃহীত ছবি

‘আত্মসমর্পণ’ করেছে ইউক্রেনের ২ শতাধিক সেনা

অনলাইন ডেস্ক

দেশের উত্তরাঞ্চলীয় উপকূলীয় শহর মারিউপোলের নিয়ন্ত্রণ রুশ বাহিনীর হাতে ছেড়ে দিয়েছে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী। সোমবার শহরটির ইস্পাত কারখানা আজভস্তাল প্ল্যান্টে অবস্থান নেওয়া ইউক্রেনীয় সেনাসদস্যদের আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনীর কমান্ডার। এরপর স্টিল কারখানায় অবরুদ্ধ আড়াইশর বেশি ইউক্রেনীয় সেনা আত্মসমর্পণ করেছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া।  

মঙ্গলবার (১৭ মে) রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে. গত ২৪ ঘণ্টায় ইউক্রেনের ২৫৬ সৈন্য অস্ত্র ফেলে আত্মসমর্পণ করেছে, যাদের মধ্যে ৫১ জন গুরুতর আহত।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেস্কভ বলেছেন, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আত্মসমর্পণ করা ইউক্রেনীয় সেনাদের সঙ্গে আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী’ আচরণ করার গ্যারান্টি দিয়েছেন।

এর আগে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী জানায়, অবরুদ্ধ মারিউপোলে নিজেদের শেষ ঘাঁটি থেকে সব সৈন্য সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে তারা।

ইউক্রেনীয় উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার জানান, আহত সেনাদের মারিউপোল থেকে প্রায় ৩০ মাইল পূর্বে রাশিয়া-নিয়ন্ত্রিত শহর নোভোয়াজভস্কের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বাকিদের মানবিক করিডোরের মাধ্যমে প্রায় ৫৫ মাইল উত্তরে ওলেনিভকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। রুশ সামরিক বন্দিদের সঙ্গে বিনিময়ের মাধ্যমে তাদের ঘরে ফিরিয়ে আনা হবে।

এদিকে, আজোভস্তাল পরিস্থিতি নিয়ে সুর নরম করেছেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এতদিন তিনি বারবার বলে এসেছেন, তাদের সৈন্যরা শেষপর্যন্ত লড়ে যাবেন, আত্মসমর্পণ করবেন না। কিন্তু এখন অবরুদ্ধ সৈন্যদের জীবন বাঁচাতে সমঝোতায় রাজি ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট।

এক ভিডিওবার্তায় জেলেনস্কি বলেছেন, আমরা আশা করছি, আমাদের লোকদের জীবন বাঁচাতে পারবো। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত রয়েছে। তাদের সেবা দেওয়া হচ্ছে। আমি বলতে চাই, ইউক্রেনীয় নায়কদের জীবিত দরকার ইউক্রেনের, সেটাই আমাদের নীতি। তাদের ঘরে ফেরানোর কাজ চলছে। তবে এতে সময় দরকার।

সুত্র : রয়টার্স,আরটি  স্কাই নিউজ ও আল জাজিরা

news24bd.tv/আলী