রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, দোনবাসে নিহত ৭
রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, দোনবাসে নিহত ৭

প্রতীকী ছবি

রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, দোনবাসে নিহত ৭

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরাশক্তি রাশিয়া। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোর থেকে শুরু হয় এই অভিযান। রাশিয়ার ছোঁড়া বোমা আর রকেটে কেঁপে উঠছে ইউক্রেনের বিভিন্ন শহর। এর মধ্যে ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি নগরী দখলে নিয়েছে রুশ বাহিনী।

ইউক্রেন-রাশিয়ার চলমান যুদ্ধ পোল্যান্ড সীমান্তবর্তী শহর লভিভ, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সামি এবং চেরনিহিভে রুশ বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। মঙ্গলবার এক ভিডিও বার্তায় তিনি এ হামলার কথা জানান।

জেলেনস্কি বলেন, দোনবাসের লুহানস্ক অঞ্চলেও বিমান হামলা চালিয়েছে মস্কো। রুশ বাহিনী ইউক্রেনের পূর্বে এবং দক্ষিণে ব্যর্থ হয়ে ক্ষয়ক্ষতি বাড়াতে চেষ্টা চালাচ্ছে বলে দাবি করেন জেলেনস্কি।

কিয়েভের দাবি, রুশ বাহিনী ডনবাসের বেসামরিক স্থাপনায় একের পর এক আঘাত হানছে। আঞ্চলিক গভর্নর পাবলো কিরিলেনকো বলেন, মঙ্গলবার রাশিয়ার হামলায় ডোনেস্কে নতুন করে ৭ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। তবে মস্কোর পক্ষে থেকে এ নিয়ে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে, দেশের উত্তরাঞ্চলীয় উপকূলীয় শহর মারিউপোলের নিয়ন্ত্রণ রুশ বাহিনীর হাতে ছেড়ে দিয়েছে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী। সোমবার শহরটির ইস্পাত কারখানা আজভস্তাল প্ল্যান্টে অবস্থান নেওয়া ইউক্রেনীয় সেনাসদস্যদের আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনীর কমান্ডার। এরপর স্টিল কারখানায় অবরুদ্ধ আড়াইশর বেশি ইউক্রেনীয় সেনা আত্মসমর্পণ করেছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

এদিকে মঙ্গলবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান জোসেপ বোরেল বলেন, রাশিয়ার সাথে চলমান যুদ্ধে কখনোই ইউক্রেনের সামরিক সরঞ্জাম ফুরিয়ে যেতে দেবেনা ইইউ।

অন্যদিকে রাশিয়ার তেলের ওপর অবরোধ আরোপ করলে ইউরোপকে চড়ামূল্য পরিশোধ করতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। সূত্র : আল-জাজিরা

news24bd.tv/রিমু