কানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যা বললেন ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট
কানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যা বললেন ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট

সংগৃহীত ছবি

কানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যা বললেন ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ব চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় আসর কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল। ফেস্টিভ্যালের ৭৫তম আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভাষণ দিলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। প্রতিবারের মতো এবারও ফ্রান্সের কান শহরে বসে এই জমকালো আয়োজন। গতকাল ১৭ মে বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ১৫ মিনিটে আসরের পর্দা উঠে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দেন জেলেনস্কি। উপস্থিত সবাই তাকে দাঁড়িয়ে সম্মান জানান তিনি। ইউক্রেনের সাবেক এই অভিনেতা নিজের ভাষণে রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য বিশ্বজুড়ে সবার সমর্থনের আবেদন জানান।

তিনি বলেন, গণকবরে ভরে গেছে ইউক্রেন। আমার দেশে প্রতিদিন মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। আমাদের সাজানো রঙিন দেশ ক্ষত-বিক্ষত-রক্তাক্ত, অথচ বিশ্ব সিনেমা নিশ্চুপ। এরকম তো হওয়ার কথা ছিল না.. বিশ্ব সিনেমা কি এভাবেই নিশ্চুপ থাকবে, তারা কি ইউক্রেনের পাশে দাঁড়াবে না, বলবে না বন্ধ হোক যুদ্ধ।

এ ছাড়াও চলচ্চিত্রে যুদ্ধ ও স্বৈরশাসকদের তুলে ধরতে ‘দ্য গ্রেট ডিক্টেটর’ ও ‘অ্যাপোক্যালিপস নাউ’র মতো ছবির উদাহরণ টেনেছেন জেলেনস্কি।

মাত্র ১৭ বছর বয়সে কমেডিয়ান হিসেবে শোবিজে পা রাখেন ভলোদিমির জেলেনস্কি। এরপর রাশিয়ান এবং ইউক্রেনীয় ভাষার একাধিক টিভি শো-তে অংশগ্রহণ করতে থাকেন। ক্রমশ তার জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে। অভিনেতা হিসেবে প্রেসিডেন্টের প্রথম সিনেমা ‘লাভ ইন দ্য বিগ সিটি’ মুক্তি পায় ২০০৯ সালে। তারপর তিনি অভিনয় করেন ‘অফিস রোম্যান্স আওয়ার টাইম’, ‘লাভ ইন ভেগাস’ সহ মোট আটটি সিনেমায়।

সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি ধারাবাহিকেও অভিনয় চালিয়ে যান ভলোদিমির জেলেনস্কি। ২০১৫ সালে ‘সারভেন্ট অব দ্য পিপল’ এবং ২০১৭ সালে ‘স্ভ্যাতি’ নামের দুটি ধারাবাহিকে দেখা যায় তাকে।

এরপর ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন এবং সেই বছরই অভিনয় পেশা থেকে সরে আসেন ভলোদিমির জেলেনস্কি। ২০১৯ সালের ৬ মে থেকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন জেলেনস্কি।  সূত্র : দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস

news24bd.tv/রিমু