গোপালগঞ্জে নদী থেকে হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার
গোপালগঞ্জে নদী থেকে হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার

প্রতীকী ছবি

গোপালগঞ্জে নদী থেকে হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মালেঙ্গায় মধুমতি বিলরুট চ্যানেলের পানিতে ভাসমান অবস্থায় এক ব্যক্তির হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ওই ব্যক্তির নাম বেলাল হোসেন (৩৫)। সে কাশিয়ানী উপজেলার কুমরিয়া গ্রামের বসার বিশ্বাসের ছেলে।

আজ বুধবার সকাল ১১টার দিকে বৌলতলী পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ইটের সঙ্গে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ওই ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করে।

এর আগে উলপুর ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার ফারজানা বেগম নদীর পানিতে লাশ ভাসতে দেখে ৯৯৯-এ ফোন দেয়। এর প্রেক্ষিতে গোপালগঞ্জের বৌলতলী পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

বৌলতলি পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক এএইচএম জসিমউদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নিউজ টোয়েন্টিফোরকে বলেন, তারা লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ ২৫০শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছেন।  

নিহতরে দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর বাবার বাড়ি সদর উপজেলার উলপুর গ্রামে। ধারণা করা হচ্ছে সেখানে কোন কারণে তাকে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য হাত-পা বেঁধে ৬টি ইট বেঁধে নদীর পানিতে ডুবিয়ে দেয়া হয়। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদেরকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

news24bd.tv/কামরুল