বাংলাদেশি শ্রমিক নিতে আগ্রহী কাতার
বাংলাদেশি শ্রমিক নিতে আগ্রহী কাতার

সংগৃহীত ছবি

বাংলাদেশি শ্রমিক নিতে আগ্রহী কাতার

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ থেকে আরও শ্রমিক নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে কাতার। বিশ্বকাপে নিরাপত্তা, আতিথেয়তা এবং পরিবহন খাতে কর্মীর চাহিদা রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে। আর তা পূরণে বাংলাদেশের কর্মী নিয়োগে আগ্রহী এই দেশ। কাতারের দোহায় বুধবার বাংলাদেশের শ্রমবাজার উন্নয়ন এবং সম্প্রসারণ বিষয়ে দেশটির শ্রমমন্ত্রী আলী বিন সামিখ আল মাররির সঙ্গে বৈঠক করেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

এ সময় বাংলাদেশের শ্রমবাজার উন্নয়ন, বিশ্বকাপ-২০২২ আয়োজনে নিরাপত্তা, আতিথেয়তা এবং পরিবহন খাত এবং বিশ্বকাপ পরবর্তী সময়ে সেবা খাতে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগের বিষয়ে আলোচনা করেন তারা। এদিন কাতারে বাংলাদেশের দূতাবাস থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

দুই দেশের ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক প্রসঙ্গে ইমরান আহমেদ বলেন, ‘মুসলিম দেশ কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল-২০২২-এর আয়োজক দেশ হওয়ায় বাংলাদেশ আনন্দিত। বিশ্বকাপ সফলভাবে আয়োজনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যে কোনো ধরনের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত। ’

বিশ্বকাপে প্রয়োজনীয় কর্মী কাতারে পাঠাতে বাংলাদেশের আগ্রহের কথা প্রকাশ করেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী।

জবাবে দেশটির শ্রমমন্ত্রীও বিশ্বকাপের নিরাপত্তা, আতিথেয়তা ও পরিবহন খাতে কর্মীর চাহিদার কথা তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগের আশ্বাস দেন। ২০২৩ সালের মাঝামাঝি কাতারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের নির্মাণখাতে কর্মী নিয়োগ শুরু হবে বলে ইমরান আহমেদকে জানান কাতারের মন্ত্রী।

বাংলাদেশ থেকে দক্ষ কর্মী নিয়োগের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন আলী বিন সামিখ আল মাররি। বাংলাদেশি কর্মীদের কর্মদক্ষতার প্রশংসার পাশাপাশি কর্মীদের কাতারের আইন মেনে চলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

বৈঠকে উপস্থিত প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক এলাকায় কাতারের বিনিয়োগ এবং দেশটির ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের বাংলাদেশ সফরের প্রসঙ্গটি সামনে আনেন।

এসময় বাংলাদেশি কর্মীদের মধ্যে সচেতনতা তৈরিতে দূতাবাসের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে কাতারের মন্ত্রীকে জানান দেশটিতে বাংলাদেশের প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন।

বাংলাদেশি কর্মীদের কাতারের আইন ও বিধিনিষেধ সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে শ্রম মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং দূতাবাসের সমন্বয়ে টিম গঠনেরও প্রস্তাব দেন তিনি।

এ ছাড়া বৈঠকে বাংলাদেশ ও কাতারের মধ্যে ঢাকায় ষষ্ঠ যৌথ কমিটির সভা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। আগামী দু-এক মাসের মধ্যে এ সভা অনুষ্ঠানের বিষয়ে মতৈক্যে পৌঁছান তারা।

এ সময় কাতারের শ্রমমন্ত্রীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমেদ। তার আমন্ত্রণ সাদরে গ্রহণ করেন দেশটির মন্ত্রী।

বৈঠকে কাতারের শ্রম মন্ত্রণালয়ের আন্ডার সেক্রেটারি হাসান আল ওবাইদলি, বোয়েসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিল্লাল হোসেন, ব্যবস্থাপক শরীফ হোসেন, দূতাবাস থেকে মিনিস্টার (শ্রম) ড. মুস্তাফিজুর রহমান, কাউন্সেলর (রাজনৈতিক) মাহবুর রহমান এবং প্রথম সচিব (শ্রম) তন্ময় ইসলামও উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/আলী