শ্রীলঙ্কার রাজপথে শিক্ষার্থীরা, ব্যাপক সংঘর্ষ
শ্রীলঙ্কার রাজপথে শিক্ষার্থীরা, ব্যাপক সংঘর্ষ

সংগৃহীত ছবি

শ্রীলঙ্কার রাজপথে শিক্ষার্থীরা, ব্যাপক সংঘর্ষ

অনলাইন ডেস্ক

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট ও নতুন প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে রাস্তায় নেমেছেন শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভের সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে ও নতুন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের পদত্যাগের দাবিতে বৃহস্পতিবার (১৯ মে) রাস্তায় নামেন দেশটির হাজার হাজার শিক্ষার্থী। এ সময় পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয় আন্দোলনকারীদের।

তাদের প্রতিহত করতে পুলিশ একপর্যায়ে টিয়ার গ্যাস ও জলকামান নিক্ষেপ করে। এতে মুহূর্তেই রণক্ষেত্রে পরিণত হয় কলম্বোর রাস্তা।

বৈদেশিক ঋণে জর্জরিত দেশটি রিজার্ভে মুদ্রা না থাকায় জ্বালানি, সারসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য আমদানি করতে পারছে না। এ অবস্থায় আরও এক শঙ্কার কথা জানিয়েছেন সেখানকার চিকিৎসকরা। রিজার্ভে বৈদেশিক মুদ্রার অভাবে অতি প্রয়োজনীয় ওষুধও আমদানি করতে পারছে না দেশটি।  

এ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসক থাকলেও নেই ওষুধ। এর মধ্যে অতি জরুরি ১১টি ওষুধের মজুত একেবারেই নেই বলে জানা গেছে। এ অবস্থায় জরুরি ভিত্তিতে ওষুধ আমদানি না করলে কঠিন আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দেশটির চিকিৎসকরা।

তবে এমন সংকটেও পদত্যাগ করবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর পি নন্দলাল ভিরাসিংহে। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) তিনি বলেন, দেশের অথনীতি পুনরুদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত তারা কোনো বৈদেশিক ঋণ পরিশোধ করতে পারবেন না।

পর্যটন খাতের ওপর অনেকটাই নির্ভরশীল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু গত দুই বছর করোনা মহামারির কারণে সেখানকার পর্যটন ব্যবসায় ধস নামে। এছাড়া দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কর কমানোসহ নানা কর্মকাণ্ডের কারণে রিজার্ভে বৈদেশিক মুদ্রা কমে যাওয়ায় এ অর্থনৈতিক সংকটের সৃষ্টি হয়।

news24bd.tv/কামরুল