ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্বামীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে স্ত্রী
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্বামীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে স্ত্রী

প্রতীকী ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্বামীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে স্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পরকীয়া নিয়ে সন্দেহ করায় বালিশ চাপা দিয়ে তাজুল ইসলাম (৫০) নামে এক প্রবাসীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। শুক্রবার (২০ মে) মধ্যরাতে সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের ঘাটিয়ারা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত তাজুল ইসলাম ওই এলাকার এমরান মোল্লার ছেলে। এ ঘটনার পর স্ত্রী সামসিয়া আক্তার তোহাকে (৪৫) আটক করেছে পুলিশ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আল-আমিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে তিনি জানান, তাজুল ইসলাম দীর্ঘ ২৪ বছর ধরে সৌদি আরবে ছিলেন। দুই মাস আগে তিনি দেশে ফিরে আসেন। দেশে ফেরার পর এক ব্যক্তির সঙ্গে স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক আছে বলে তার সন্দেহ হয়। এ নিয়ে তাজুল ইসলামের সঙ্গে স্ত্রী সামসিয়া আক্তার তোহার মনোমালিন্য শুরু হয়।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, নিহতের স্বজনদের অভিযোগ- শুক্রবার মধ্যরাতে পরকীয়ার বিষয়টি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এরই একপর্যায়ে স্ত্রী তাজুল ইসলামকে চেয়ার তুলে মাথায় আঘাত করেন। এরপর বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করেন। ঘটনার পরপর অভিযুক্ত সামসিয়া আক্তার তোহাকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা আছে।

news24bd.tv/আলী