বিচ্ছিন্ন সামরিক জান্তা সরকার প্রধানের মস্কো সফর
বিচ্ছিন্ন সামরিক জান্তা সরকার প্রধানের মস্কো সফর

সংগৃহীত ছবি

বিচ্ছিন্ন সামরিক জান্তা সরকার প্রধানের মস্কো সফর

অনলাইন ডেস্ক

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ক্রমশ বিচ্ছিন্ন হতে থাকা মিয়ানমারের সামরিক জান্তা সরকারের প্রধান মিন অং হ্লাইং রাশিয়া সফর করেছেন। সাম্প্রতিক এ সফরে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে তিনি বৈঠক করেছেন বলে আল জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুর সঙ্গে মিন অং হ্লাইংয়ের বৈঠকের বিষয়ে মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, বিদ্যমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নেয়া এবং সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতা জোরদারে তারা খোলামেলা আলোচনা করেছেন।

মিয়ানমারে কারাবন্দি অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি ২০২০ সালের নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পরও ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতার দখল নেয় সামরিক বাহিনী।

সে অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারের সেনাদের অন্যতম সমর্থকে পরিণত হয় রাশিয়া।

অস্ত্রের জোরে ক্ষমতায় আসা বর্তমান সরকারের আন্তর্জাতিক বৈধতা একেবারে সামান্য। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে অভ্যন্তরীণ বিরোধিতা।

সামরিক অভ্যুত্থানের পরপরই মিয়ানমারজুড়ে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ হয়। সে বিক্ষোভ দমনের পর এখন সশস্ত্র প্রতিরোধ শুরু করেছেন বিরোধীরা। এমন বাস্তবতায় রাশিয়ার মতো পরাশক্তির সহায়তা দরকার জান্তা সরকারের।

মিয়ানমারে সেনাশাসিত সরকারকে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়নি রাশিয়া। এমনকি দেশটিতে উৎখাত হওয়া গণতান্ত্রিক সরকারের দূতের আসন জাতিসংঘে বহাল রাখার বিষয়েও সম্মত হয়েছে মস্কো।

অভ্যুত্থানের পর বেশ কয়েকবার রাশিয়া সফর করেছেন মিন অং হ্লাইং। সে তুলনায় প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে খুব বেশি দেখা যায়নি তাকে, তবে পশ্চিমা অনেক দেশ যখন মিয়ানমারের সেনাবাহিনী, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ওপর অবরোধ আরোপ করছে, তখন রাশিয়া ও চীন জান্তা সরকারকে অস্ত্র দেয়া অব্যাহত রেখেছে।

news24bd.tv/আলী