গণমাধ্যমকর্মী বিলে কিছু সংশোধনী আনার আভাস

গণমাধ্যমকর্মী বিলে কিছু সংশোধনী আনার আভাস

তাসলিম তৌহিদ

গণমাধ্যমকর্মী বিলে কিছু সংশোধনী আনা হতে পারে। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমন আভাস দিয়েছেন।  

তিনি বলেন, বিলটিতে সাংবাদিকদের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রস্তাব নেয়া হবে। এদিকে সিনিয়র সাংবাদিকরা বলছেন, বেতন-ভাতা বা সুযোগ সুবিধা নিয়ে সংবাদকর্মীদের বিভিন্ন অধিকার আদায়ে প্রস্তাবিতে বিলে আদালত গঠনের যে বিধান রাখা হয়েছে তা বাতিল করা উচিত।

সুপ্রিম কোর্টের একজন আইনজীবি বলছেন, বিলটি পাস হলে সাংবাদিকদের অধিকার আরও সংকুচিত হবে।  

চলতি বছরের মার্চে জাতীয় সংসদে উত্থাপিত হয় গণমাধ্যমকর্মী বিল। যাতে বেতন পরিশোধ, ছুটি নির্ধারণ এবং দাবি নিষ্পত্তির জন্য প্রয়োজনে আদালত গঠনের বিধান রাখা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন ধরণের গণমাধ্যমের জন্য আলাদা বেতন কাঠামো নির্ধারণের কথাও বলা হয়েছে।

বর্তমানে বিলটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়েছে। এটি পাস হলে গণমাধ্যমকর্মীরা আর শ্রমিক হিসেবে পরিচিত হবেন না।

কিন্তু বিলটি নিয়ে নানা মত রয়েছে গণমাধ্যম কর্মীদের মাঝে। এর নামকরণ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন সিনিয়র সাংবাদিক মনজুরুল আহসান বুলবুল।

সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী মোনজিল মোরশেদ মনে করেন, উত্থাপিত বিলটি পাশ হলে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টের মতো সাংবাদিকদের ওপর আরও একটি খড়গ নামবে।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলছেন, সাংবাদিকদের আপত্তি বিবেচনায় নিয়ে তাদের কাছে লিখিত সংশোধনী চাওয়া হয়েছে। সংসদীয় কমিটির সভায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের পরই বিলটি আবারও সংসদে উত্থাপন করার কথা জানান তিনি।

news24bd.tv/কামরুল