‘খাল সমস্যা সমাধানে ১শ’ কোটি টাকার মহাপরিকল্পনা’
‘খাল সমস্যা সমাধানে ১শ’ কোটি টাকার মহাপরিকল্পনা’

‘খাল সমস্যা সমাধানে ১শ’ কোটি টাকার মহাপরিকল্পনা’

আরেফিন শাকিল

খাল পাড়ের অবৈধ দখলদার উচ্ছেদে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন আরো কঠোর হবে বলে জানিয়েছেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

তিনি জানান, র্দীঘ মেয়াদী খাল সমস্যা সমাধানে ১শ কোটি টাকার মহাপরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। খালের বর্জ্য পরিস্কারের প্রথম দিনে শ্যামপুরের মোহাম্মদবাগের কয়েকটি বাড়ির অবৈধ অংশ ভেঙ্গে দেয় সিটি কর্পোরেশন।

সরকারি দলিলে রাজধানীর কদমতলীর শ্যামপুর খালের আয়তন ত্রিশ ফিট।

কিন্তু দখল দূষণে এখন তা দশ ফিটেরও কম। সেটি আবার পরিণত হয়েছে ময়লার ভাগাড়ে।

বছর জুড়ে থাকে খালের পানি দুর্গন্ধ। মশার উপদ্রব আর জলবাদ্ধতা এই এলাকার র্দীঘদিনের সমস্যা।

স্থানীয়রা জানান, ১৯৯১ সালের আগে শ্যামপুর খালে নৌকা চলাচল করতো। কিন্তু নিয়মিত দখলে এখন ড্রেনে রূপ নিয়েছে ঢাকার এই আদি খাল। যদিও দখলদাররা বলছেন, এসব জমি তাদের পূর্ব পুরুষের।

এমন দাবি উড়িয়ে দিয়ে দক্ষিণের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, অচিরেই খালপাড়ের সব দখলদারদের উচ্ছেদ করা হবে।

মেয়রের এমন বক্তব্যের পরপরই খাল পাড়ের দুটি বাড়ির অবৈধ অংশ ভেঙে দেওয়া হয়।

মেয়র জানান, সব খাল স্থায়ীভাবে উদ্ধার করে তা খনন ও পরিস্কার করা গেলে জলাবদ্ধতা মুক্ত হবে ঢাকার দক্ষিণ-পূব অঞ্চল।

তবে ডিএনডি প্রকল্পের কাজ শেষ না হ্ওয়ায় শুধু খাল উচ্ছেদে জলাবদ্ধতা কমবে না বলে মনে করেন স্থানীয়রা।

news24bd.tv তৌহিদ